Monday , October 3 2022
গৃহিনীদের জন্য কয়েকটি অসাধারণ টিপস
Image: google

গৃহিনীদের জন্য কয়েকটি অসাধারণ টিপস, যা অনেকই জানেন না!

দৈনন্দিন জীবনে খুব সহজে রান্নাঘরের বিভিন্ন কাজ সেরে ফেলার জন্য কিচেন টিপস গুলোর কিন্তু মুখ্য ভূমিকা থেকে থাকে। বিভিন্ন ধরনের কিচেন টিপস খুব সহজেই আমাদের কাজ সহজ করে তোলে এবং সময় বাঁচিয়ে নেয়। তাহলে আসুন আর সময় নষ্ট না করে আজকের বিশেষ

কয়েকটি কিচেন টিপস সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক। তার আগে আপনাদের একটি কথা জানিয়ে রাখি এই যে সমস্ত কিচেন টিপসগুলি আপনারা সংসারের কাজে প্রয়োগ করতে চলেছেন সেগুলি কিন্তু অবশ্যই ভালোভাবে করবেন নয়তো আপনার কাজে লাগবে না। অনেক

ক্ষেত্রেই কিন্তু কাজে ছোট ছোট ভুল সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে। তাই সমস্ত দিকেই আপনাদেরকে নজর রাখতে হবে। সাংসারিক কাজ বা কিচেনের কষ্ট কমাতে সব গৃহিনীদের প্রয়োজন অনুযায়ী অসাধারণ কয়েকটি কিচেন টিপস:

১) রান্না করার সময় অনেক ক্ষেত্রে কিন্তু তরকারিতে হলুদের পরিমাণ বেশি হয়ে যায়। এই হলুদের পরিমাণ কম করার জন্য একটি খুন্তি নিয়ে ভালো করে গ্যাসে গরম করে নিন। তারপর যে রান্নাতে হলুদের পরিমাণ বেশি হয়ে গেছে সেখানে খুন্তিটি কিছুক্ষণ ডুবিয়ে রেখে দিন। দেখবেন খুব সহজেই আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছে।
২) ফুলকো রুটি বা লুচি খেতে কিন্তু যে কোন মানুষ খুব ভালোবাসেন। অনেক সময় দেখা যায় রুটি বা লুচি তৈরি হলেও তা কিন্তু ফুলে ওঠে না।। এই সমস্যার সমাধান করতে হলে আপনারা আটা বা ময়দা মাখার সময় সামান্য পরিমাণে তেল অথবা ঘি, তাতে মাখিয়ে কিছুক্ষণ ঢাকনা চাপা দিয়ে রেখে দিতে পারেন।।

৩) কিছু কিছু মাছের ক্ষেত্রে কিন্তু দেখবেন আঁশটে গন্ধের পরিমাণ অত্যন্ত বেশি হয়। এই গন্ধ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য মাছের উপরে সামান্য পরিমাণে লেবুর রস ছড়িয়ে দিতে পারেন। তাহলে কিন্তু আর আপনার সমস্যা হবেনা।
৪) পেঁয়াজ রসুনের খোসা ছাড়ানোর সময় অনেক ক্ষেত্রে কিন্তু ফ্যানের হওয়ার কারণে এগুলি দূরে ছড়িয়ে গিয়ে ঘর নোংরা করে তোলে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আপনারা একটি পাত্রের মধ্যে জল নিয়ে তাতে পেঁয়াজ বা রসুনের খোসা রেখে দিলে কিন্তু তা আর হাওয়ায় উড়ে যাবে না।

৫) পেঁয়াজ কাটার সময় অনেক ক্ষেত্রেই আমাদের চোখে একপ্রকার ঝাঁজালো ভাব সৃষ্টি হয়। খুব জ্বালা করতে থাকে এবং চোখ থেকে জল পড়ে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য পেঁয়াজ কাটার আগে কিছুক্ষণ যদি আপনারা জলে ভিজিয়ে রাখতে পারেন তাহলে কিন্তু ঝাঁঝালো ভাব দূর হয়ে যাবে।
৬) ভেন্ডি বা ঢ্যারস কিন্তু একটি অত্যন্ত সুস্বাদু সবজি। কিন্তু এটি রান্না করার সময় এক ধরনের চটচটে বা পিচ্ছিল ভাব চলে আসে। সেটার জন্য বিরক্তির কারণে কিন্তু অনেকেই ভেন্ডি খেতে চান না। তবে ভেন্ডি রান্না করার সময় আপনারা যদি সামান্য পরিমাণ লেবুর রস উপরে ছড়িয়ে দিতে পারেন তাহলে কিন্তু আর এই চট্চটে ভাব থাকবে না এবং ভেন্ডি খেতেও অত্যন্ত সুস্বাদু হবে।

৭) বিরিয়ানি খেতে আমরা কম বেশি সকলেই পছন্দ করে থাকি তবে পারফেক্ট বিরিয়ানি কিন্তু সবাই বানাতে পারে না। ঝরঝরে বিরিয়ানি ঠিক তখনই তৈরি হবে যখন বিরিয়ানি বানানোর ৫ ঘন্টা আগে আপনারা চাল ভিজিয়ে রাখবেন। এই ভিজিয়ে রাখা চালের মধ্যে সামান্য পরিমাণে ঘি কিংবা রান্নার সাদা তেল মিশিয়ে দিতে পারেন।
৮) করলা একটি অত্যন্ত উপকারী এবং ভালো সবজি। তবে এর তেতো ভাবের জন্য অনেকে এটি খেতে চায় না বিশেষ করে বাচ্চারা। করোলার তেতোভাব কাটানোর জন্য আপনারা এটি কাটার পরেই সামান্য পরিমাণে লবণ ও লেবুর রস ছড়িয়ে দিতে পারেন। খুব সহজেই আপনাদের সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

৯) পটল হচ্ছে গরমকালের একটি অত্যন্ত চেনা পরিচিত সবজি। অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় বেশি সময় এটি সংরক্ষণ করে রাখলে কিন্তু শুকিয়ে যায়। শুকিয়ে যাওয়া পটল রান্না করলে কিন্তু তার স্বাদ অতটা ভালো হয় না। আপনারা চাইলেই খুব সহজে পটল একেবারে তাজা করে নিতে পারেন। এর জন্য একটি পাত্রের মধ্যে পরিমাণ মতো জল দিয়ে লবণ ও চিনি মিশিয়ে নিতে হবে।তারপর এই লবন ও চিনি মেশানো
জলের মধ্যে আধ ঘন্টা সময় পর্যন্ত পটল গুলিকে ভিজিয়ে রাখলে কিন্তু তা একেবারে ফ্রেশ হয়ে যাবে।
১০) পনির খেতে সকলেই কমবেশি ভালবাসেন। অনেকেই কিন্তু পনির রান্না করার আগে ভেজে নিয়ে থাকেন। তারপর ই যে সমস্যাটা দেখা যায় তা হল ভাজার পনির কিন্তু অনেকটা শক্ত হয়ে যায়। আগের মতন আর নরম তুলতুলে অবস্থায় থাকে না।। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য পনির ভেজে নেওয়ার পর একটি পাত্রে জল নিয়ে তাতে লবণ মিশিয়ে নিতে হবে।তারপর সেই লবণ মেশানো জলের মধ্যে পনির গুলি কে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখলেই কিন্তু সেগুলি আর শক্ত হবে না।

Check Also

কুকুর তেড়ে আসলে কখনোই দৌঁড় দিতে হয় না

কুকুর তেড়ে আসলে কখনোই দৌঁড় দিতে হয় না। কী করা উচিত তা জেনে নিন

রাতে বাড়ি ফেরার সময় এলাকার গলিতে কুকুরের জটলা। যদি তেড়ে আসে তা ভেবে অনেকের কপালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.