Tuesday , October 4 2022
সারা বছর এই পদ্ধততে চাল সংরক্ষণ করে রাখলে পোকা ধরবে না!
image: google

সারা বছর এই পদ্ধততে চাল সংরক্ষণ করে রাখলে পোকা ধরবে না!

আমাদের দেশের মানুষের প্রধান খাদ্য বলতে কিন্তু আমরা সর্বপ্রথমে ভাতের কথাই বলতে পারি। এই ভাত তৈরিতে চালের গুরুত্ব অপরিসীম। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সাথে তাই শেয়ার করে নেব কিভাবে আপনারা পোকামাকড়ের হাত থেকে চালকে দীর্ঘ

সময় পর্যন্ত ভালোভাবে বাঁচিয়ে রাখতে পারবেন।অনেক সময় এমন হয় যে চাল বেশি থাকলে তাতে পোকা ধরে। এমন অবস্থায় পোকা দূর করার পরও সে ভাত খেতে ভালো লাগে না।আসলে চাল বেশিদিন মজুত করে রাখলে তাতে মাইটের মতো ছোট পোকা হয়ে থাকে। তবে খুব

ছোট ছোট উপায় অবলম্বন করে আপনারা কিন্তু খুব সহজেই চালে থাকা এই সমস্ত প্রকার হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন। চলুন আর দেরি না করে কিভাবে আপনারা এই চালের প্রকার সমস্যা থেকে মুক্তি লাভ করবেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নেয়া যাক।চালের পোকা দূর করার বিশেষ টিপস:

১) চালের পোকা দূর করার জন্য আপনারা নিম পাতা বা তেজপাতা ব্যবহার করতে পারেন। নিম পাতার মধ্যে কীটনাশকের গুন রয়েছে তাই খুব সহজেই এটি শস্য সংরক্ষণ করার কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে। বাড়িতে মজুদ থাকা চালের মধ্যে আপনারা যদি কয়েকটা নিমপাতা আর তেজপাতা রেখে দিতে পারেন তাহলে কিন্তু এটি দীর্ঘ সময় পর্যন্ত ভালো থাকবে এবং কোন রকমের পোকা লাগবে না।
২)অনেক সময় এক বস্তা চাল এনে সরাসরি বাক্সে রাখলেও চাল নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। পলিথিন বা পাত্রে কখনোই চাল রাখবেন না।

এগুলি সর্বদা বায়ুরোধী পাত্রে রাখা উচিত। খুব বেশি বাতাসের প্রভাবের কারণেও কিন্তু চাল নষ্ট হয়ে যায় বা এতে পোকা লেগে যেতে পারে। এই ব্যাপারটি কে অবশ্যই নজরে রাখার চেষ্টা করুন।
৩) চাল ভালো রাখার জন্য বা পোকা দূর করার জন্য আপনারা কিন্তু শুকনো লঙ্কা ব্যবহার করতে পারেন। যে পাতিলে আপনি চাল রেখেছেন সেখানে অবশ্যই ছয় থেকে সাতটি শুকনো লঙ্কা রেখে দিন।। মোটামুটি সপ্তাহ দুয়েক পর পর আপনাদের এই লঙ্কা পরিবর্তন করে দিতে হবে।

তবে সেই লঙ্কাগুলি ফেলে দেওয়ার দরকার নেই। লঙ্কাগুলি খুব সহজেই আপনারা রান্নার কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। এই শুকনো লঙ্কা দেওয়া থাকলে কিন্তু সহজে আপনাদের চালে পোকা লাগবে না।
৪) শুকনো লঙ্কার বদলে চালে পোকামাকড় দূর করার জন্য আপনারা গোলমরিচের বীজ ব্যবহার করতে পারেন। চালের পাতিল এর মধ্যে গোটা

কালো মরিচ দানা রেখে দিন দেখবেন আর এতে কখনোই পোকা লাগবে না। এটি একটি সম্পূর্ণ নতুন তথ্য এবং অত্যন্ত কার্যকরী। তাই অবশ্যই কিন্তু চাল সংরক্ষণ করার সময় এটিকে আপনারা ট্রাই করতে ভুলবেন না।
৫) সংরক্ষণের জন্য আপনারা কিন্তু ফ্রিজের ব্যবহারও করতে পারেন। যদি খুব বেশি চাল না থাকে সেক্ষেত্রে বায়ুরোধী পাত্রে ভরে আপনারা ফ্রিজে খুব সহজেই এটিকে রেখে দিতে পারেন।।এছাড়া পোকা যদি ধরে যায় তাহলে বায়ুরোধী পাত্রে ভরে ঢাকনা বন্ধ করে একদিনের জন্য

ফ্রিজে রাখুন। পরের দিন তা বের করলে দেখবেন সব পোকা মরে গিয়েছে। তখন পোকা বেছে ফেলে দেবেন। তবে রান্নার আগে অবশ্যই বেশ কিছুক্ষণ চাল ভিজিয়ে রেখে ভালো করে বেশ কয়েকবার ধুয়ে নিতে ভুলে যাবেন না।

Check Also

কুকুর তেড়ে আসলে কখনোই দৌঁড় দিতে হয় না

কুকুর তেড়ে আসলে কখনোই দৌঁড় দিতে হয় না। কী করা উচিত তা জেনে নিন

রাতে বাড়ি ফেরার সময় এলাকার গলিতে কুকুরের জটলা। যদি তেড়ে আসে তা ভেবে অনেকের কপালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.