Friday , September 24 2021
Home / সংস্কার / জীবনের জটিল সমস্যা সমাধানে সোমবার এই বিশেষ নিয়মগুলো মেনে চলুন

জীবনের জটিল সমস্যা সমাধানে সোমবার এই বিশেষ নিয়মগুলো মেনে চলুন

সমস্যা সবার জীবনেই আছে, সমাধানও আছে। প্রত্যেকটা মানুষ চায় তার জীবনে যেন কোনো সমস্যা না আসে। জীবন যেন সুন্দর সুষ্ঠ ভাবে অতিবাহিত হয়। কিন্তু আমাদের চাওয়ার উপরে সব কিছু নির্ভর করে না। জীবনে চলার পথে কোনো না কোনো সমস্যা চলেই আসে। এই

সমস্যা কাটানোর জন্য অনেকেই অনেক নিয়ম মেনে চলেন।কেউ তাবিজ ধারন করেন, আবার কেউ কেউ স্টোন ধারন করেন। কেউ ভগবানের উপর বিশ্বাস রেখে বিভিন্ন পুজো আর্চা করে থাকেন। তবে পুরোটাই বিশ্বাসের উপর নির্ভরশীল। অনেক মানুষ আছে যাদের উপরে

বিভিন্ন দিনের প্রভাব বিভিন্ন। হিন্দুমতে সোমবার ভগবান পরমেশ্বর শিবের প্রিয় বার। অধিকাংশ শৈব হিন্দুরা সোমবারে শিবের ব্রত পালন করেন। শ্রাবণ মাসের সব সোমবার শিবের ব্রত পালন করা হয়। শিব হলেন হিন্দু ধর্মাম্বলীদের অন্যতম দেবতা। শিব সৃষ্টি স্থিতি ও লয়রুপ তিন কারনের

কারন।তাই মনে করা হয় জীবনের জটিল থেকে জটিলতর সমস্যায় শিবের শরণাপন্ন হলে সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। প্রতি সোমবার মহাদেবকে তুষ্ট করতে হলে কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়। আসুন জেনে নেওয়া যাক কি সেই নিয়ম যা পালন করলে সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া

যায়। প্রতি সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে স্নানের জলে কালো তিল দিয়ে স্নান করুন। শাস্ত্র মতে কালো তিল দিয়ে স্নান করলে শরীর শুদ্ধ হয়। এরপর বাড়িতে শিবলিঙ্গ থাকলে তা পুজো করার জন্য প্রস্তুত হন। প্রথমে শিবলিঙ্গকে ভালো করে দুধ দিয়ে স্নান করিয়ে তারপর আবার

মধু ও ঘি দিয়ে ভালো করে স্নান করান। এরপর গঙ্গাজল দিয়ে আবার স্নান করান। তারপর নিখুঁত বেলপাতা ও ফুল দিয়ে পুজো করুন। ধুপ ধুনো জ্বেলে মহাদেবের পুজো করুন ‘ওম নমঃ শিবায়ঃ’ মন্ত্র উচ্চারন করে। আর পুজোতে অবশ্যই অপরাজিতা ফুল রাখুন।এরপর শিবলিঙ্গের

উপর চন্দনের ফোটা দিয়ে দিন, বাতাসা ও মনের মত মিষ্টি দিয়ে পুজো করুন মহাদেবের। আর সেইদিন অবশ্যই নিরামিষ খান। এই পদ্ধতিতে সোমবার মহাদেবের পুজো করে মহাদেবকে তুষ্ট করে কাটিয়ে তুলুন জীবনের জটিল সমস্যা।

Check Also

দুই সন্তানসহ চাচিকে বিয়ে করল ভাসুরের ছেলে!

দীর্ঘ দেড় যুগের পরকীয়ার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে দুই সন্তানসহ চাচিকে বিয়ে করল ভাসুরের ছেলে!

দীর্ঘ দেড় যুগের পরকীয়ার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে দুই সন্তানসহ চাচিকে বিয়ে করল ভাসুরের ছেলে!- দীর্ঘ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *