Tuesday , October 4 2022
সারাজীবন ফিট থাকবেন সবসময়! শুধু চিকিৎসকের পরামর্শে খান হেলদি ডায়েট
Image: google

সারাজীবন ফিট থাকবেন সবসময়! শুধু চিকিৎসকের পরামর্শে খান হেলদি ডায়েট

আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষেরই এখন খাবারদাবারের ঠিক নেই। এবার দেখা গিয়েছে যে খাদ্যাভ্যাস (Diet) ঠিক না থাকলে অনেক ক্ষেত্রেই সমস্যা দেখা দিতে পারে। এমনকী খাবার ঠিক রাখতে পারলেই মানুষ ভালো থাকেন। এই পরিস্থিতিতে প্রতিটি মানুষকে অবশ্যই সতর্ক

হয়ে যেতে হবে। কারণ মাথায় রাখতে যে ঠিকমতো খাবার খাওয়া এই সময়ে খুবই প্রয়োজন। এই অতিমারীর পর আমরা বুঝতে শিখেছি যে স্বাস্থ্যকর খাবার জীবনে ঠিক কতটা প্রয়োজন। ভালো খাবার খাওয়া, ঠিকমতো জীবন অতিবাহিত করতে পারলে অনেক গুরুতর সমস্যা থেকে

নিস্তার পাওয়া যায়। এমনকী এই সহজ উপায়েই আপনি বহুদিন বাঁচতে পারবেন। নিজের খাদ্যাভ্যাসে কিছুটা বদল করে ভালো খাবার খান। তবেই সুস্থ থাকতে পারবেন। আপনি যদি পুষ্টিকর খাবার খান, তবে অনেক গুরুতর অসুখ থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে ফেলতে পারবেন । এক্ষেত্রে

কিডনির রোগ, ল্যাকটোজ ইনটলারেন্স, সিলিয়াক ডিজিজের সমস্যা থেকেও অনেকটা দূরত্ব রাখা যায়। তাই এই বিষয়টি অবশ্যই মাথায় ঢুকিয়ে নেওয়া উচিত। এছাড়া ডায়েট ঠিক থাকলে হার্টের রোগ থেকে শুরু করে অনেক গুরুতর সমস্যা থেকে বাঁচা সম্ভব। অবশ্য এসবের পাশাপাশি জীবনযাত্রারও পরিবর্তন জরুরি। তাই এই বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে।

1. খান তাজা খাবার- সুস্থ থাকতে গেলে প্রথমেই আপনাকে খেতে হবে তাজা খাবার। তাজা খাবারের মধ্যে থাকে যথেষ্ঠ পুষ্টি। ভিটামিন, মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সহজেই সমস্যার করে দিতে পারে সমাধান। তাই এই বিষয়টি যতটা সম্ভব মাথায় রাখা খুবই জরুরি। এক্ষেত্রে তাজা ফল, শাক, সবজি খান। ​
2. ভালো পরিমাণে জলপান করুন সুস্থ থাকতে- পর্যাপ্ত জলপান করা হল খুবই জরুরি। দেখা গিয়েছে ঠিকমতো জলপান না করার কারণে অনেক সমস্যা হয়। এই পরিস্থিতিতে আপনি যদি কেবল ১০ থেকে ১২ গ্লাস জল দিনে পান করতে পারেন, তবে অনেক সমস্যার সমাধান হতে পারে। এটাও শরীরের জন্য ভালো। ​

3. দুগ্ধজাত খাবারও শরীর ভালো রাখে- মাথায় রাখতে হবে যে দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার কিন্তু শরীরের জন্য উপকারী। তবে সেক্ষেত্রে খেতে হবে ফ্যাট ছাড়া স্কিম মিল্ক। তবেই ভালো থাকতে পারবেন। অন্যথায় সমস্যা গুরুতর হয়ে যাবে। এছাড়া চেষ্টা করুন বাড়ির খাবার খাওয়ার। সুস্থ থাকতে পারবেন। এটা মাথায় রাখুন। ​

4. গোটা দানা শস্য খান- দানাশস্য আমাদের খাবারের একটা বিরাট অংশ। এবার সারাদিনে খাওয়া দানাশস্যের মধ্যে অন্তত অর্ধেকভাগ খেতে হবে গোটা দানাশস্য। এরমধ্যে রয়েছে ব্রাউন রাইস, বার্লি, ওটস ইত্যাদি। এতে থাকা জটিল কার্বোহাইড্রেট শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এমনকী ডায়াবিটিস নিয়ন্ত্রণ করে। কমায় হৃদরোগ ও ক্যানসারের আশঙ্কা। ​
5. সুস্থ থাকতে ডায়েটের পাশাপাশি ব্যায়াম- শুধু ডায়েটে লাভ হবে না। বরং আপনাকে মাথায় রাখতে হবে যে ডায়েটের পাশাপাশি ব্যায়ামটাও দরকার। দিনে অন্ততপক্ষে ৩০ থেকে ৪০ মিনিট যোগ, ব্যায়াম বা জিমে সময় কাটাতে হবে। তবেই আপনি ভালো থাকতে পারবেন। অন্যথায় সমস্যা বাড়বে বই কমবে না। এছাড়া নিয়মিত চেকআপ করান। পরামর্শ নিন চিকিৎসকের। তবেই আজীবন সুস্থ থাকবেন। এড়িয়ে যাওয়া যাবে সব অসুখ।

Check Also

কুকুর তেড়ে আসলে কখনোই দৌঁড় দিতে হয় না

কুকুর তেড়ে আসলে কখনোই দৌঁড় দিতে হয় না। কী করা উচিত তা জেনে নিন

রাতে বাড়ি ফেরার সময় এলাকার গলিতে কুকুরের জটলা। যদি তেড়ে আসে তা ভেবে অনেকের কপালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.