Thursday , May 19 2022
Home / রুপচর্চা / কোঁকড়া চুল সোজা করার ৫টি উপায় জেনে নিন
কোঁকড়া চুল সোজা করার ৫টি উপায় জেনে নিন
Image: google

কোঁকড়া চুল সোজা করার ৫টি উপায় জেনে নিন

কোঁকড়া চুল সোজা করার ৫টি উপায় জেনে নিন- উফফফ! সেক্সি সিল্কি নরম স্ট্রেট চুল! ভাবলেই গা-টা কেমন করে ওঠে না? বুঝতেই পারছি, আপনার স্বপ্নের নায়িকাদের মতো সেক্সি, স্ট্রেট চুল(Hair) পাবার ইচ্ছে তো আপনার বহুদিনের! এদিকে পার্লারে গিয়ে চুল সোজা

করানোর কথা ভাবলেই পকেটটা কড়কড় করে ওঠে! নাহ। আপনি কিপটে নন মোটেই। পার্লারে গিয়ে চুল সোজা করার করার হ্যাপা অনেক, খরচও অনেক। তাছাড়া পার্লারে গিয়ে চুল সোজা করার করা কিন্তু মোটে ভালো নয়! ওতে পকেটে টান তো পড়েই, আর চুলের ক্ষতিও হয়। এদিকে বিয়েবাড়ি বা অন্য কোনো অনুষ্ঠানে আপনার কোঁকড়ানো চুল সোজা না করলে আপনারই শান্তি হয় না! তাহলে উপায়? আজ আমরা

কেবলমাত্র আপনারই জন্যে নিয়ে এসেছি কোঁকড়ানো চুলকে সোজা করার পাঁচ পাঁচটি সহজ নিয়ম, তাও আবার ঘরে বসে। জলদি দেখে নিন, আর এবার পার্লারকে বাই বলে ঘরেই চুলকে স্ট্রেট করুন।

১: হট অয়েল ট্রিটমেন্ট চুলে হট অয়েল ম্যাসাজ করা যে ভালো, তা নিশ্চয়ই জানেন। কিন্তু জানেন কি, চুলকে যদি সোজা করতে চান, তাহলেও হট অয়েল ট্রিটমেন্ট আপনার জন্য অব্যর্থ উপায় হতে পারে। কীভাবে? উপকরণ নারকেল, অলিভ, তিল বা বাদাম—যে কোনো মাথায় মাখার তেল। পদ্ধতি তেল হালকা করে গরম করে মাথায় লাগান, আর ১৫ থেকে ২০ মিনিট ধরে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। তারপর ভালো

করে চিরুনি দিয়ে আঁচড়ে স্টিম দিয়ে গরম করা তোয়ালে দিয়ে মাথা অন্তত ৩০-৪০ মিনিট ঢেকে রাখুন। এরপর শ্যাম্পু(Shampoo) দিয়ে চুল ধোবার পর চিরুনি দিয়ে আঁচড়ে নিয়ে দেখুন। উপকার পাচ্ছেন। আপনার কোঁকড়ানো, বাউন্সি চুলকে সহজে সোজা করার এটা কিন্তু দারুণ একটা উপায় হতেই পারে। আর এটা যদি কাজ না দেয়?

২: দুধ মুখকে পরিষ্কার রাখতে মুখে দুধ তো হরদম মেখেই থাকেন, কিন্তু চুল সোজা করতেও দুধ? শোনেননি জানি। আপনার চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে সোজা করতে চুল কিন্তু দারুণ জিনিস হতে পারে।উপকরণ হাফ কাপ দুধ, হাফ কাপ জল। পদ্ধতি একটা স্প্রে বোতলে দুধ আর জল মিশিয়ে আপনার মাথায় ভালো করে স্প্রে করুন। তবে স্প্রে করার আগে দেখবেন চুলে যেন কোনো জট না থাকে। এরপর স্প্রে করে ভালো করে চুল আঁচড়ে নিন। ৩০ মিনিট রাখার পর চুলে শ্যাম্পু করে নিন। দেখবেন সপ্তাহে বার তিনেক করলে উপকার পাচ্ছেনই!

৩: নারকেলের দুধ নারকেলের দুধ কিন্তু আপনার চুলকে সহজেই সোজা করতে পারে। নারকেলের দুধ(Coconut milk) আপনার চুলকে ময়েশ্চারাইজ করে তো বটেই, তাছাড়া প্রাকৃতিকভাবে আপনার চুলকে স্মুদ অ্যান্ড সিল্কি যদি করতে চান, তাহলে নারকেলের দুধ আপনার বেস্ট অপশন হতে পারে। তাছাড়া নারকেলের দুধের অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি-ফাঙ্গাল ও অ্যান্টি-ভাইরাল গুণ আপনার স্ক্যাল্পকেও ইনফেকশনের হাত থেকে রক্ষা করতে পারে। উপকরণ ১ কাপ ফ্রেশ নারকেলের দুধ, ১ টা পাতিলেবুর রস। পদ্ধতি একটা কাঁচের জারে নারকেলের দুধ আর

লেবুর রস(Lemon juice) মিশিয়ে নিন। তারপর পাত্রটিকে ঘণ্টাখানেক ফ্রিজে রাখুন। দেখবেন ওর ওপর একটা ক্রিমি আস্তরণ তৈরি হচ্ছে। ওই ক্রিমটি আপনার মাথায় স্ক্যাল্পে ভালো করে ম্যাসাজ করে লাগান ও ২০ মিনিট মতো রেখে দিন। মাথাকে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ঢেকে রাখুন যাতে আপনার চুল ময়েশ্চারাইজড থাকে। এরপর ৩০ মিনিট রেখে হালকা শ্যাম্পু করে নিন। চুল ভিজে থাকতে থাকতেই আঁচড়ে নিন ও শুকোতে দিন। দেখবেন ঘরে বসে পার্লারের স্ট্রেটনিং পাচ্ছেন!

৪: ডিম আর অলিভ অয়েল ডিম আর অলিভ অয়েলের মিশ্রণ আপনার চুলের জন্যে দারুণ হেয়ার প্যাক হতে পারে। কিন্তু আপনি কি জানেন, আপনার কোঁকড়ানো চুলকে সোজা করতে এদের জুড়ি নেই! ডিম আপনার চুলকে মজবুত আর শক্তিশালী বানাবে, আর অলিভ অয়েল আপনার চুলকে ময়েশ্চারাইজড রাখবে। আর এই দুটোর মিশ্রণ আপনার চুলকে সহজে সোজাও করবে। উপকরণ ২ টো ডিম, ৪ চামচ

অলিভ অয়েল। পদ্ধতি ডিম ভালো করে ফেটিয়ে তাতে অলিভ অয়েল(Olive oil) মেশান। এবার আপনার মাথায় ওটা ভালো করে মাখিয়ে বড় দাঁড়ার চিরুনি দিয়ে আঁচড়ে নিন। শাওয়ার ক্যাপ পরে মিনিট ৪০ মতো রেখে হালকা শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন। তারপর দেখবেন আপনার কোঁকড়ানো চুল কতটা স্ট্রেট হল!

৫: অ্যালোভেরা চুলের যত্নে যে অ্যালোভেরার জুড়ি নেই, তা আপনার জানা। অ্যালোভেরায় থাকা এনজাইম চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। তাছাড়া অ্যালোভেরা চুলকে নরম, স্মুদ আর ময়েশ্চারাইজডও করে। কিন্তু জানেন কি যে অ্যালোভেরা আপনার চুলকে স্ট্রেট করতেও সাহায্য করে? উপকরণ হাফ কাপ অ্যালোভেরার রস, হাফ কাপ গরম অলিভ অয়েল। পদ্ধতি অ্যালোভেরার রস আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে তা

আপনার মাথার চুলে আর স্ক্যাল্পে ভালো করে ম্যাসাজ করুন। শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে মাথা ঢেকে ঘণ্টা দুয়েক মতো রাখুন। তারপর শ্যাম্পু করে চুল আস্তে করে আঁচড়ে নিন। দেখবেন অ্যালোভেরার যাদু!বুঝতেই পারছেন ঘরোয়া পদ্ধতিতে চুল সোজা করতে চাইলেই তা সহজে হবে না। তাই ওপরের পদ্ধতিগুলো সবই অল্টারনেট করে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে করুন। দেখবেন পার্লার লাইক স্ট্রেটনিং ফিনিশ আস্তে আস্তে পাচ্ছেন। আর এবার দেরী না করে কাল থেকেই লেগে পড়ুন। দেখবেন চুলও স্ট্রেট হচ্ছে, আর পার্লারে যাবার টাকাও বেঁচে যাচ্ছে!

Check Also

নারীদের স্ট্রেচ মার্ক দূর করার ঘরোয়া উপায়

নারীদের স্ট্রেচ মার্ক দূর করার ঘরোয়া উপায়

নারীদের স্ট্রেচ মার্ক দূর করার ঘরোয়া উপায়- ত্বকে ফাটা দাগ বা স্ট্রেচ মার্ক। এই দাগ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.