Home / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / হারিয়ে যাওয়া ফোন যে পদ্ধতিতে ব্লক করবেন!

হারিয়ে যাওয়া ফোন যে পদ্ধতিতে ব্লক করবেন!

হারিয়ে যাওয়া ফোন যে পদ্ধতিতে ব্লক করবেন!- হারিয়ে যাওয়া ফোন যেভাবে ব্লক করবেন! ডিজিটাল প্রযুক্তি এখন এতটাই উন্নত হয়ে গেছে যে স্মার্টফোনের মাধ্যমেই এখন বাড়িতে বসে সব কিছু করা সম্ভব। আজকাল ইলেকট্রিক বিল দেওয়া, ট্যাক্স জমা দেওয়া থেকে শুরু করে শপিং-

সমস্ত কিছুই মোবাইলে পেমেন্ট অ্যাপগুলির মাধ্যমে হয়ে যায়। কিন্তু একবার কি ভেবে দেখেছেন, আপনার মোবাইল ফোনটি চুরি হয়ে গেলে এই সব পেমেন্টসংক্রান্ত তথ্য কত সহজেই অন্য কারো হাতে চলে যেতে পারে? এছাড়া আপনার প্রাইভেসিও এর ফলে নষ্ট হয়। তাই ফোন

হারিয়ে গেলে বা চুরি হলে সঙ্গে সঙ্গে ফোনটি ব্লক করে দেওয়া উচিত। এর ফলে অন্য কেউ আপনার ফোন ব্যবহার করতে পারবে না। এমনকি ফোনটি বিক্রিও করতে পারবে না, কারণ ব্লক করা ফোনে কোন নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করবে না। তাহলে চলুন দেখে নিই কিভাবে চুরি হওয়া মোবাইল ফোন ব্লক করতে পারবেন। মোবাইল ফোন ব্লক করার উপায়: মোবাইল ফোন চুরি হওয়ার পর সবার প্রথমে আপনাকে

নিকটবর্তী থানায় একটি FIR দায়ের করতে হবে। মোবাইল ফোন চুরির রিপোর্ট অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনেও দায়ের করা যায়। অভিযোগ জানানোর পর অভিযোগকারীকে FIR কপি ও কমপ্লেন নম্বর অবশ্যই নিতে হবে। এরপর সেন্ট্রাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টিটি রেজিস্টার (CEIR)-এর ওয়েবসাইট ceir.gov.in-এ যেতে হবে। CEIR-এর কাছে দেশের সমস্ত মোবাইল ফোনের তথ্য যেমন ফোন মডেল, সিম এবং IMEI

নম্বর থাকে। এর সাহায্যে তারা চুরি যাওয়া মোবাইল ফোন খুঁজে বের করতে পারে। সেই সঙ্গে মোবাইল ফোন ব্লক এবং আনলক করতে পারে। ceir.gov.in-এ ক্লিক করার পর আপনি তিনটি অপশন পাবেন। Block/Lost Mobile, Check Request Status এবং Un-Block Found Mobile। এরপর চুরি হওয়া মোবাইল ফোন ব্লক করার জন্য Stolen/Lost Mobile অপশনে ক্লিক করুন। এরপর একটি পেজ খুলবে যেখানে

আপনি মোবাইলের বিষয়ে তথ্য দিতে পারবেন। মোবাইল ফোনের তথ্যের মধ্যে মোবাইল নম্বর, IMEI নম্বর, ডিভাইসের ব্র্যান্ড, কোম্পানি, ফোন কেনার রসিদ, ফোন হারানোর তারিখ জানাতে হবে। এছাড়া আরও যেসব তথ্য দিতে হবে তা হল রাজ্য, জেলা, ফোন হারানোর এলাকা এবং কমপ্লেন নম্বর। পুলিশের কাছে করা অভিযোগের কপিও আপলোড করতে হবে। এরপর Add more complaint-এ ক্লিক করতে হবে

যেখানে মোবাইল মালিকের নাম, ঠিকানা, আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স ও আইডেন্টিটি কার্ড জমা দিতে হবে। শেষে আরেকবার মোবাইল নম্বর দিতে হবে। এরপর আপনার নম্বরে একটি ওটিপি আসবে। ওটিপি দিলে ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ হবে। এরপর ফাইনাল

সাবমিট করলে চুরি হওয়া মোবাইল ফোন ব্লক হয়ে যাবে। এছাড়া ফোনের ব্যাপারে কিছু জানা গেলেও আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে। সুতরাং এবার থেকে ফোন হারালে এই পদক্ষেদগুলি গ্রহণ করুন আর সহজেই নিজের প্রাইভেসি সুরক্ষিত রাখুন।

About By Moni Sen

Check Also

এয়ারটেল (Airtel) লঞ্চ করল ২ টি নতুন সস্তা কম্বো প্ল্যান, যার দাম 78 টাকা থেকে শুরু

এয়ারটেল (Airtel) লঞ্চ করল ২ টি নতুন সস্তা কম্বো প্ল্যান, যার দাম 78 টাকা থেকে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x