Thursday , August 5 2021
Home / সংস্কার / হাতের রেখাই জানাবে আপনার জীবনে বিপর্যয়ের সময় ও কারণ

হাতের রেখাই জানাবে আপনার জীবনে বিপর্যয়ের সময় ও কারণ

হাতের রেখাই জানাবে আপনার জীবনে বিপর্যয়ের সময় ও কারণ- জীবন মানেই সেখানে আনন্দ, বেদনা, আতংক, বিপদ ইত্যাদিতে ভরপুর। মানুষের জিবনে নানা রকম সমস্যাই থাকে। যা আমাদের জীবনে উন্নতিতেও বাধা দেয়। জানেন কি, একজন মানুষের উপরে গ্রহ শুভ ও

অশুভ প্রভাব বিস্তার করে। মূলত অশুভ বাস্তুর প্রভাবেই জীবনে উন্নতিতে বাধার সৃষ্টি হয়। এর ফলে নানান কারণে মানসিক অশান্তিও হতে পারে। অনেক সময় দেখা যায় গ্রহ দোষ না থাকলেও জীবনে বাধা বিপত্তি আসছে।

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে, হস্তরেখা বিচার করলে এ সম্পর্কে ধারণা পাওয়া সম্ভব। চলুন জেনে নেয়া যাক সেগুলো-

1. যদি শিরো রেখা ও হৃদয় রেখা সমান্তরাল হয়, তাহলে জাতক বা জাতিকা বন্ধুত্ব ও শত্রুতা আজীবন স্বীকার করে বা মনে রাখে।
2. আবার ভগ্ন শিরো রেখার অর্থ, জাতক বা জাতিকার মাথায় কোনো চিন্তা খুব বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। যে বয়সে এই রেখা ভগ্ন হয়, সেই বয়স থেকেই জাতক বা জাতিকা নানা মানসিক রোগের শিকার হতে পারে। কারণ এটা একটা মানসিক অশান্তির লক্ষণ বা চিহ্ন।

3. কোনো জাতক বা জাতিকার হৃদয় রেখা যদি শেষ প্রান্তে এসে দুটি ভাগে ভাগ হয়ে যায় এবং একটি বৃহস্পতির স্থানে ও অন্যটি বৃদ্ধাঙ্গলির দিকে যায় তাহলে তার জীবন শান্তিপূর্ণ হয়। ওই জাতক বা জাতিকা উদার ও চিন্তাশীল প্রকৃতির হয়ে থাকে।
4. যদি এই রেখা দুটি ভাগে ভাগ হয়ে একটি বৃহস্পতির দিকে ও অন্যটি শনির দিকে যায়, তাহলে জাতক বা জাতিকা স্নেহপ্রবণ প্রকৃতির হয়ে থাকে। প্রেমের ক্ষেত্রে মাঝে মধ্যেই আঘাত পায়।

5. যদি শিরো রেখাতে চতুষ্কোণ চিহ্ন থাকে, তাহলে তা শুভ। ওই সময়ে জাতক বা জাতিকা সব বাধা বিপত্তি থাকে নিষ্কৃতি পেতে পারেন। আবার এক বা একাধিক রেখা ওই রেখাকে কেটে চলে যাওয়া অশুভ লক্ষণ। যে বয়সে শিরো রেখার উপর দিয়ে এক বা একাধিক রেখা কেটে চলে

যায়, ওই বয়সে জাতক বা জাতিকার নানা মানসিক চাঞ্চল্য ও তার ফলে আর্থিক ক্ষতি, শোক, আঘাত, অসুস্থতা বা মানসিক অশান্তির কারণ হতে পারে। সূত্র: জিনিউজ

Check Also

তুলসী গাছের পাশে ভুল করেও রাখবেন না এই জিনিস নইলে সংসারে নেমে আসবে চরম অভাব

তুলসী গাছের পাশে ভুল করেও রাখবেন না এই জিনিস নইলে সংসারে নেমে আসবে চরম অভাব

তুলসী গাছের পাশে ভুল করেও রাখবেন না এই জিনিস নইলে সংসারে নেমে আসবে চরম অভাব- ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *