Friday , June 25 2021
Home / বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি / সহজেই জাল নোট চিনে নিন আপনার স্মার্টফোনের মাধ্যমে

সহজেই জাল নোট চিনে নিন আপনার স্মার্টফোনের মাধ্যমে

সহজেই জাল নোট চিনে নিন আপনার স্মার্টফোনের মাধ্যমে – জাল টাকার কারবার রুখতে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ২০১৬-তে নরেন্দ্র মোদির ডিমিনিটাইজেশনের পর কেটে গিয়েছে অনেকগুলো দিন। পুরনো নোটের বদলে বাজারে এসে গিয়েছে ১০, ৫০, ১০০, ২০০,

৫০০ আর ২০০০ টাকার নতুন নোট। কিন্তু এরপরও বিভিন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার হয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকার জাল নোট। জাল নোট পাচারের অভিযোগে গ্রেফতারও করা হয়েছে অনেককে। আর সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল বেশিরভাগই জালনোট উদ্ধার হয়েছে নতুন ৫০০ বা ২০০০

টাকার। ফলে বিমুদ্রাকরণের পরও কমেনি জাল নোটের কারবারি।সাধারণ মানুষেরও খালি চোখে জাল নোটের ফারাক বোঝা সম্ভব হয় না। ফলে বেজায় সমস্যায় পড়তে হয় তাঁদেরও। কিন্তু কীভাবে এই সমস্যা থেকে বেড়িয়ে আসা যায়? কী করে শনাক্ত করা যাবে নকল নোট? আপনাকে

নকল নোট চেনাতে সাহায্য করবে স্মার্টফোন। সেই সঙ্গে দৃষ্টিহীনদেরও বলে দেবে কোন নোট কত টাকার। আম জনতার সুবিধার কথা ভেবে একটি অ্যাপ তৈরি করা হয়েছে। এই অ্যাপের নাম দেওয়া হয়েছে ‘রোশনি’। অ্যাপটি তৈরি করেছেন আইআইটি রোপারের তিন অধ্যাপক এবং

তাঁদের সহকারী এক ছাত্র। কীভাবে কাজ করবে এই স্মার্ট অ্যাপ মূলত স্মার্টফোনের ক্যামেরার মাধ্যমেই কাজ করবে এই অ্যাপ। এই অ্যাপ চালু করে ক্যামেরার সামনে কোনও নোট ধরা হলে তত্ক্ষণাত্ জানা যাবে যে সেটি কত টাকার নোট। শুধু তাই নয়, অ্যাপ স্ক্যানারের নিচে ধরা

নোটটি নকল কিনা, তাও বলে দেবে ‘রোশনি’। ১৩ হাজারেরও বেশি নোটের ছবি ও বিস্তারিত তথ্য এই অ্যাপে মধ্যে সেভ করে রাখা হয়েছে। দৃষ্টিহীনদেরও জন্য এই অ্যাপ কার্যকারী কিনা তা চন্ডীগড়ের ব্লাইন্ড স্কুলে গিয়ে পরীক্ষা করা হয়েছে। এই পরীক্ষায় ১০০ শতাংশ সফল হয়েছে

‘রোশনি’। কিছুদিনের মধ্যেই হয়তো অ্যাপটি বাজারে চলে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই অ্যাপের ফলে জাল নোট খুব চেনা যাবে বলে আশাবাদী সকলে।

About Moni Sen

Check Also

গ্যাসের সিলিন্ডারের নিচে এই গর্তগুলো কেন থাকে জানেন

গ্যাসের সিলিন্ডারের নিচে এই গর্তগুলো কেন থাকে জানেন

গ্যাসের সিলিন্ডারের নিচে এই গর্তগুলো কেন থাকে জানেন- বর্তমানে, প্রায় প্রতিটি ভারতীয়দের রান্নাঘরেই গ্যাস সিলিন্ডার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *