Wednesday , January 27 2021
Home / সংস্কার / মানিব্যাগে এই জিনিস রাখলে ঘরে আসবে প্রচুর টাকা, দূরে থাকবে সব অভাব-অনটন

মানিব্যাগে এই জিনিস রাখলে ঘরে আসবে প্রচুর টাকা, দূরে থাকবে সব অভাব-অনটন

মানিব্যাগে এই জিনিস রাখলে ঘরে আসবে প্রচুর টাকা, দূরে থাকবে সব অভাব-অনটন – আজ এই অর্থ সঞ্চয়ের জন্য বেশ কিছু উপায় আপনাদের জানাব, যা সঠিকভাবে মেনে চললে আপনার কোনোদিন অর্থাভাব থাকবেনা। জেনে নিন সেইসব টোটকা । প্রতিটা মানুষই সংসারে

সুখে-শান্তিতে থাকতে চান। আর এই সুখ-শান্তি বজায় রাখার জন্য অর্থের বিশেষ প্রয়োজন। তবে শুধু অর্থ উপার্জন করলেই হবে না। তাঁর সাথেই সেই অর্থের সঞ্চয় করাও প্রয়োজন। যদি অর্থ উপার্জন করে বেরিয়েই যায়, তাহলে সংসারে সবসময় অভাব-অনটন দেখা দেয়। তবে

অতীতে যাতে টাকা-পয়সা সঠিকভাবে সঞ্চয় করা যায়, তাঁর জন্য নানা উপায় বলতেন। যদিও এখন হাল-ফ্যাশনের যুগে অনেকেই সেইসব মানেন না। আমরা বর্তমান সময়ে স্টাইল করার জন্য একেক সময়ে একেক রকম মানিব্যাগ ব্যবহার করে থাকি। তবে মনে রাখা দরকার, এই

মানিব্যাগের উপর নির্ভর করে অর্থভাগ্য। আজ এই অর্থ সঞ্চয়ের জন্য বেশ কিছু উপায় আপনাদের জানাব, যা সঠিকভাবে মেনে চললে আপনার কোনোদিন অর্থাভাব থাকবেনা। জেনে নিন সেইসব টোটকা – ১) চাল- আপনার অপ্রয়োজনীয় খরচ বন্ধ করবার জন্য এবং আর্থিক

সমৃদ্ধি বৃদ্ধি করতে আপনাকে ২১টি চাল একটি কাগজে মুড়ে মানিব্যাগে রেখে দিতে হবে। এইটা করলে আপনার বাড়তি খরচ কমবে আর অর্থের সমৃদ্ধি ঘটবে। ২) মা লক্ষ্মীর ছবি- হিন্দু শাস্ত্র মতে ধন সম্পদের দেবী হলেন মা লক্ষ্মী। আপনার মানিব্যাগে একটি লক্ষ্মীর ছবি রেখে

দিন। দেখবেন এটা করলে আপনার অর্থের উপার্জন বাড়বে। ৩) আশীর্বাদী নোট- মা-বাবা বা কোনো গুরুজনের আশীর্বাদী নোট জাফরান এবং হলুদ মিশিয়ে নিজের মানিব্যাগে রাখুন। এটা করলে আর্থিক সমৃদ্ধি বৃদ্ধির পাশাপাশি আপনি বিপদ থেকেও রক্ষা পাবেন। ৪) অশ্বত্থ

পাতা- পুরাণ মত অনুযায়ী, অশ্বত্থ গাছ সবসময়ই শুভ লক্ষণের প্রতীক। একটি অশ্বত্থ পাতা জলে ধুয়ে মানিব্যাগে রেখে দিন। সেই পাতাটি শুকিয়ে গেলে ফেলে দিয়ে আবার সতেজ পাতা রাখুন। তবে শুকনো পাতা রাখবেন। না এটা মানলে আপনার আর্থিক সমৃদ্ধি ঘটবে।

About By Moni Sen

Check Also

এসব জিনিস কারো কাছ থেকে নিলে বা দিলে অ’ভাব পিছু ছা’ড়ে না!

এসব জিনিস কারো কাছ থেকে নিলে বা দিলে অ’ভাব পিছু ছা’ড়ে না! – অর্থ-কড়ি ধার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x