Saturday , July 24 2021
Home / লাইফ-স্টাইল / মাত্র ৭ টাকা জমিয়ে প্রতিমাসে পেয়ে যান ৫০০০ টাকা

মাত্র ৭ টাকা জমিয়ে প্রতিমাসে পেয়ে যান ৫০০০ টাকা

মাত্র ৭ টাকা জমিয়ে প্রতিমাসে পেয়ে যান ৫০০০ টাকা – ভারতবর্ষে এমন বেশকিছু যোজনা রয়েছে যার মাধ্যমে আপনারা খুব কম পয়সা খরচ করলেই নিজের ভবিষ্যৎ টা সুরক্ষিত রাখতে পারবেন। ভারতবর্ষের মতো দেশে যেখানে বহু মানুষ পেনশনের উপরে ভরসা করে থাকেন, তাদের

জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এনেছে অটল পেনশন যোজনা। যদিও আপনারা অনেকেই হয়তো এই পেনশন যোজনা ব্যাপারে জানেন। কিন্তু আপনারা হয়তো এটা জানেননা, যে এখানে মাত্র ৭ টাকা করে ইনভেস্ট করলেই প্রতিমাসে ৫০০০ টাকা পেয়ে যেতে পারেন। ৪০ বছর বয়সি পর্যন্ত

ব্যক্তিদের জন্য এই বিশেষ যোজনা কাজ করে। ২০১৫ সালে এই যোজনা নিয়ে এসেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সে যে কোন ভারতীয় নাগরিক এই যোজনায় ইনভেস্ট করলে পেনশন এর সুবিধা পেয়ে যাবে। যাদের ব্যাংক এবং পোস্ট অফিসের একাউন্ট আছে তাদের

ক্ষেত্রে শুধুমাত্র এই সুবিধা কাজ করবে। ইনভেস্ট করলেন নিজের সময় মত আর তারপর ৬০ বছরের পরে প্রতিমাসে আপনারা পেনশন পেতে থাকবেন একটি নির্দিষ্ট হারে। এই যোজনায় আপনারা ১,০০০ থেকে শুরু করে সর্বাধিক ৫,০০০ টাকা পর্যন্ত পেনশন পেতে পারেন প্রতিমাসে।

আধার নম্বর, মোবাইল নম্বর এবং সেভিংস ব্যাংক অ্যাকাউন্টের নম্বর দিয়ে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করাতে হবে। যত কম বয়সে এই যোজনায় আপনারা নিজের নাম নথিভুক্ত করবেন ততটাই সুবিধা হবে আপনার পরবর্তী জীবনে। যদি আপনি ১৮ বছর বয়সে এই অটল পেনশন যোজনা

গ্রহণ করেন তাহলে আপনি ৬০ বছর পরে ৫,০০০ টাকা করে পেতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে প্রতিমাসে ২১০ টাকা করে জমা করতে হবে। যদি আপনি প্রতিমাসে ১০০০ টাকা পেনশন পেতে চান তাহলে আপনাকে জমা করতে হবে ৪২ টাকা করে। ২০০০ টাকা পেনশন পেতে

হবে জমা করতে হবে ৮৪ টাকা করে। এছাড়াও ৩০০০ টাকার জন্য ১২৬ টাকা, ৪০০০ টাকার জন্য মাসে ১৬৮ টাকা এবং ৫,০০০ টাকার জন্য মাসে ২১০ টাকা জমা করতে হবে।যদি ৬০ বছরের আগে আপনার মৃত্যুও হয় এবং স্ত্রী নমিনি থাকে, তাহলে সাবস্ক্রাইবার যতটা

সুবিধা পাওয়ার কথা ছিল, ঠিক সেটুকু সুবিধা সেও পাবেন। আপনারা এই যোজনার ট্যাক্স বেনিফিট ও গ্রহণ করতে পারবেন ১.৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত।

Check Also

স্ত্রীকে কখনোই বলবেন না এই ৬ টি কথা

স্ত্রীকে কখনোই বলবেন না এই ৬ টি কথা

স্ত্রীকে কখনোই বলবেন না এই ৬কথা- দাম্পত্য সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেই ভালোবাসা, সহমর্মিতা, ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *