Home / রুপচর্চা / মাত্র ২ দিনে পা ফাটার সমস্যা দূর করুন সহজে, জে’নে নিন টোটকা

মাত্র ২ দিনে পা ফাটার সমস্যা দূর করুন সহজে, জে’নে নিন টোটকা

মাত্র ২ দিনে পা ফাটার সমস্যা দূর করুন সহজে, জে’নে নিন টোটকা – শীত পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই টান ধরছে ত্বকে। যার জেরে কি আপনার গোড়ালি ফেটে বিচ্ছিরি হতে শুরু করেছে? তার মানে আপনি পায়ের যত্ন নিচ্ছেন না। যেভাবে মুখের বা চুলের যত্ন নেন শীতকালে তার চেয়েও

বেশি যত্ন নেওয়া উচিত পায়ের। কারণ, আপনার পা কিন্তু ধুলোবালির সংস্পর্শে বেশি আসে। শীতের দিনে পা ফাটার একটা সমস্যা। তবে এখনও খুব দেরি হয়নি, আজ থেকেই যদি আপনি প্রচেষ্টা শুরু করেন, তা হলে তীব্র শীতেও পা থাকবে মখমলি কোমল। যাঁদের পা ফাটার

সমস্যা খুব বেশি ভোগায়, তাঁদের রাস্তায় বের হওয়া মানেই মোজার সঙ্গে পা ঢাকা জুতো পরুন। বিশেষ করে গোড়ালি ঢাকা জুতো। শীতের কয়েকটা মাস পা ঢাকা পিপ টো, ব্যালেরিনা, মোজরি বা পাম্প শ্যুর উপর আস্থা রাখুন। স্নিকার্স তো সত্যিই ভালো অপশন। স্নানের পর পায়ে

ময়েশ্চরাইজ়ার লাগিয়ে নেওয়া আবশ্যক, তারপর পা ঢাকা জুতো পরার আগে ভালো করে ক্রিম মেখে মোজা পরে ঢাকা জুতো পরলে সুস্থ থাকবে গোড়ালি। প্রতিদিন কাজকর্মের শেষে বাড়িতে ফিরে অন্তত মিনিট ২০ পা ডুবিয়ে রাখুন শ্যাম্পু মেশানো উষ্ণ জলে। তুলে পামিস স্টোন

বা ঝামাপাথর দিয়ে ঘষে নিয়ে একবার ধুয়ে নিন, তার পর ক্রিম মেখে, চটি পরে নিন। রাতে সোয়ার সময় ডিপ ময়েশ্চরাইজ়ার লাগিয়ে নিন।পায়ের ত্বকের মৃত কোষ প্রতিদিন পরিষ্কার করতে হবে, জমতে দিলেই কিন্তু কড়া পড়ার আশঙ্কা বাড়বে। চালের গুঁড়ো, মধু, লেবুর রস,

দুধের সর দিয়ে ঘরোয়া স্ক্রাব তৈরি করে নিন। ফুটবাথ নেওয়ার পর এই প্যাক লাগিয়ে খানিকক্ষণ রাখুন। শুকনো হয়ে গেলে ঘষে ঘষে তুলবেন।ফুট বাথ নেওয়ার পর অ্যালো ভেরা জেল আর অলিভ অয়েলের একটা মিশ্রণ তৈরি করে পুরো পায়ে ভালো করে লাগিয়ে নিন।কয়েকটি

ভিটামিন ই ক্যাপসুলে ফুটো করে তেলটা বের করে নিন। তার পর পেট্রোলিয়াম জেলির সঙ্গে ভিটামিন ই মিশিয়ে সেটা পায়ে মেখে ফেলুন। রাতের দিকে এই প্রলেপ লাগিয়ে মোজা পায়ে দিয়ে শুলে দারুণ নরম থাকবে পা।

About By Moni Sen

Check Also

কাঁচা হলুদের ফেসমাস্ক

ব্রণমুক্ত, উজ্জ্বল ও ফর্সা ত্বক পেতে কাঁচা হলুদের ফেসমাস্ক

ব্রণমুক্ত উজ্জ্বল ও ফর্সা ত্বক পেতে কাঁচা হলুদের ফেসমাস্ক – ত্বককে উজ্জ্বল ও ফর্সা করার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x