Home / স্বাস্থ্য / মাত্র ১সপ্তাহে ৫-১০কিলো ওজন কমবে, ওজন কমানোর সব থেকে সেরা উপায় ব্যায়াম,ডায়েট ছাড়া

মাত্র ১সপ্তাহে ৫-১০কিলো ওজন কমবে, ওজন কমানোর সব থেকে সেরা উপায় ব্যায়াম,ডায়েট ছাড়া

মাত্র ১সপ্তাহে ৫-১০কিলো ওজন কমবে, ওজন কমানোর সব থেকে সেরা উপায় ব্যায়াম,ডায়েট ছাড়া-
আজকে আমি আপনাদের সাথে একটা সুপার ওয়েট লস টিপস শেয়ার করবো। যেটা নিয়মিত ব্যবহার করলে আপনি মাত্র ১ সপ্তাহে ৫ থেকে ৬ কিলো পর্যন্ত ওয়েট লস করে ফেলতে পারবেন। এই সহজ ওয়েট লস টিপসটি

সত্যিই ভীষণ ভীষণ কার্যকরী। এই পদ্ধতিটি সরাসরি আমাদের মেটাবলিজম সিস্টেমকে ইম্প্রুভ করে। আর আমাদের শরীর থেকে টক্সিনসকে পুরোপুরি বের করেন দেয়। যার ফলে দ্রুত ওজন কমতে থাকে। আর এই পদ্ধতিতে দ্রুত ওয়েট লস করার জন্য আপনার কোনো রকম শারীরিক

এক্সারসাইজ অথবা কোন রকম ডায়েট প্ল্যান ফলো করার প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র আপনি ওয়েট লস ড্রিংকটিকে নিয়মিত খেতে থাকুন। তো চলুন দেখে নিই, দ্রুত ওয়েট লস করার জন্য এই সহজে ওয়েট লস ড্রিংক কিভাবে তৈরি করা যায়। টারমারিক পাউডার এই ওয়েট লস

ড্রিংটিকে বানানোর জন্য আমাদের প্রধান যে উপাদানটি প্রয়োজন সেটি হলো হলুদ গুঁড়ো অর্থাৎ টারমারিক পাউডার। খাবারের রং আনার জন্যে আর খাবারের স্বাদ পরিবর্তনের জন্য প্রায় সমস্ত ঘরে ঘরে হলুদ গুঁড়ো ব্যবহার হয়ে থাকে। খাবারের রং ও স্বাদ পরিবর্তন করা ছাড়াও হলুদ

গুঁড়োর অনেক রকমের স্বাস্থ্যগুণ আছে, যা আমরা অনেকেই জানিনা। দ্রুত ওয়েট লস করার জন্য হলুদ একটি অসাধারণ উপাদান। কারণ হলুদের মধ্যে কারকিউমিন থাকে। যা আমাদের শরীরে জমে থাকা চর্বি দ্রুত বার্ণ করতে সাহায্য করে আর কোলেস্টরেল লেভেলকে নিয়ন্ত্রণ

করে। আর তার সাথে সাথে মেটাবলিজম সিস্টেমকে উন্নত করে। যার ফলে দ্রুত ওয়েট লস হয়। ১০০%চ্যালেঞ্জ মাত্র ১সপ্তাহে ৫-১০কিলো ওজন কমবেই সবার প্রথমে আপনারা হলুদগুঁড়ো নিন।এবার একটি বাটিতে কিছুটা জল নিয়ে তিন থেকে চার মিনিট পর্যন্ত ফুটিয়ে নিন। এবার

একটি কাপ নিন আর এর মধ্যে হাফ চামচ হলুদ গুঁড়ো নিন। তারপর এর মধ্যে ওই ফুটানো গরম জল ঢেলে দিন। আর তারপর ভাল করে
মিক্স করে নিন।আপনি চাইলে এর মধ্যে এক চামচ মধুও এড করতে পারেন। এক চামচ মধু ফ্রেন্ডস আমাদের ম্যাজিকাল সুপারফাস্ট ওয়েট

লস ড্রিঙ্ক তৈরি হয়ে গেছে। তো চলুন দেখে নেয়া যাক দ্রুত ওয়েট লস করার জন্য কিভাবে এই ড্রিংকটিকে খেতে হয়। প্রতিদিন সকাল বেলা খালি পেটে এই ড্রিংকটিকে নিয়মিত খেতে থাকুন। আপনি ড্রিংকটিকে চায়ের মত গরম থাকতে থাকতেই খাবেন। এভাবে টানা সাতদিন পর্যন্ত

নিয়মিত খেলে আপনি মাত্র ১ সপ্তাহে ৫ থেকে ১০ কিলো পর্যন্ত ওয়েট খুব সহজেই কমিয়ে ফেলতে পারবেন। আর সেটা কোন রকম ডায়েট আর এক্সারসাইজ না করেই। তবে একটা বিষয় মনে রাখবেন এই ড্রিংকটিকে পান করার সময় কোন রকম ভাজাপোড়া অথবা ফাস্টফুড খাওয়া একেবারেই চলবে না।

About By Moni Sen

Check Also

শিশুর বুকে জমে থাকা কফ গলানোর সহজ পদ্ধতি

শিশুর বুকে জমে থাকা কফ গলানোর সহজ পদ্ধতি

শিশুর বুকে জমে থাকা কফ গলানোর সহজ পদ্ধতি – শিশুর বুকে জমে থাকা কফ গলানোর ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x