Monday , July 26 2021
Home / দেশ-বিদেশ / ভারতের এই রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার থেকে সাফাই কর্মী সবাই নারী!

ভারতের এই রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার থেকে সাফাই কর্মী সবাই নারী!

ভারতের এই রেলওয়ে স্টেশনের স্টেশন মাস্টার থেকে সাফাই কর্মী সবাই নারী!- আজকের যুগে মহিলারা পুরুষের চেয়ে কোনো দিক দিয়ে কম নয়। মহিলা যেকোনো ধরনের কাজ পুরুষের সাথে একই গতিতে কিভাবে করতে পারে। জয়পুরের গান্ধীনগর রেজিস্ট্রেশনের নারী ক্ষমতায়নের

এমনই একটি জীবন্ত উদাহরণ পাওয়া যায়। এই স্টেশনটির বিশেষ বিষয়টি হলো এখানে সমস্ত স্টাফ মহিলা।গত তিন বছর ধরে পুরো স্টেশনটি কেবল মহিলা কর্মচারী দ্বারায় পরিচালিত হয়। জয়পুর দিল্লি রুটে এই বিখ্যাত রেজিস্ট্রেশন এর 40 জন কর্মচারী কাজ করছেন। মজার বিষয়

হচ্ছে এসমস্ত কর্মচারী মহিলা। তারপর স্টেশনমাস্টার বা ক্লিনিং স্টেপের প্রতিটি ব্যক্তি মহিলা। এমনকি আরপিএফ এর কর্মীরা ও একজন মহিলা।এইভাবে গান্ধীনগর কে দেশের প্রথম প্রধান পেশা হিসেবে পরিণত করা কেবল মহিলা কর্মচারী দ্বারা।এটি ফেব্রুয়ারি 2018 সালে উত্তর-

পশ্চিম রেলওয়ে দ্বারা সম্পূর্ণরূপে মহিলাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। এর আগে এই রেকর্ডটি ছিল মাতুঙ্গা রেল স্টেশনের নামে। যদি এটি শহরতলি রেল স্টেশন আপনি অবাক হবেন যে গান্ধী নগর রেলস্টেশন কি খুবই ব্যস্ত। প্রতিদিন প্রায় 50 টি ট্রেন স্টেশন দিয়ে যায়। এই ট্রেন

গুলিতে প্রায় 7 হাজার যাত্রী যাতায়াত করে। এমন পরিস্থিতিতে এত বড় ডাটা পরিচালনা করা কোন বাচ্চাদের খেলা নয়। তবে এখন এখানকার মহিলা কর্মীরা এটিকে ভালোভাবে পরিচালনা করেন। সেখানে সিসিটিভি ক্যামেরা ইন্সটল করা হয়েছে। এখানকার মহিলারা কর্মচারীরা দিনরাত

আধঘন্টা শিফটে কাজ করেন। এই সমস্ত ক্ষেত্রে একটি সুসংগততা বজায় রাখতে তাদের স্বেচ্ছাসেবীদের হোয়াটসঅ্যাপের সখী নামে একটি গ্রুপ তৈরি করা হয়েছে এখানে রেলস্টেশনে একটি প্যাড ভেন্ডিং মেশিন রয়েছে। কোন সন্দেহ নেই যে এই জয়পুর রেলস্টেশন কি নারী ক্ষমতায়নের

উদাহরণ।আমরা আশা করি এটি দেখার পরে দেশের অন্যান্য রেলওয়ে স্টেশন গুলি ও এর থেকে অনুপ্রেরণা নেবে এবং আরও বেশিসংখ্যক মহিলা কর্মচারীদের চাকরিতে রাখবেন। কাজের দিক থেকে মহিলারা পুরুষের চেয়ে কম নয় এর উদাহরণ এই রেল স্টেশনটি। স্টেশনটি সম্পর্কে

আপনি কি ভাবেন?আপনি কি কখনো স্টেশন পরিদর্শন করেছেন? যদি করে থাকেন তবে দয়া করে মন্তব্য বিভাগে আপনার অভিজ্ঞতাটি বলুন।আমরা আরো আশা করি যে ভবিষ্যতে আমরা অন্যান্য কাজের ক্ষেত্রেও এই জাতীয় মহিলা ক্ষমতায়ন দেখতে পাবো।

Check Also

সন্তানের জন্য ৪৩ বছর ধরে পুরুষ সেজে রইলেন মা, ‘দেশের সেরা মা’ সম্মানে ভূষিত করল সরকার

সন্তানের জন্য ৪৩ বছর ধরে পুরুষ সেজে রইলেন মা, ‘দেশের সেরা মা’ সম্মানে ভূষিত করল সরকার

কথায় বলে, একজন মাকে মা হয়ে ওঠার জন্য দিতে হয় অনেক বলিদান। সন্তানের জন্য মা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *