Monday , July 26 2021
Home / স্বাস্থ্য / ‘ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’ থেকে বাঁচতে যা যা করবেন

‘ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’ থেকে বাঁচতে যা যা করবেন

‘ব্ল্যাক ফাঙ্গাস’ থেকে বাঁচতে যা যা করবেন- করোনাকালে নতুন আতঙ্ক নিয়ে হাজির হয়েছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস তথা কালো ছত্রাক। ভারতে তাণ্ডব চালানোর পর পশ্চিমবঙ্গ হয়ে ভয়ানক এই ছত্রাক প্রবেশ করেছে বাংলাদেশে। ইতোমধ্যে দুজন শনাক্ত এবং একজনের মৃত্যুর খবর দিয়েছেন

চিকিৎসকরা। তারা বলছেন, আতঙ্কিত না হয়ে বরং কিছু নিয়ম মানলে এই ছত্রাক থেকে বাঁচা যাবে। black fungus চিকিৎসাবিদ্যার ভাষায় একে বলা হয় ‘মিউকোরমাইকোসিস’। করোনাভাইরাসে আক্রান্তরাই এই ছত্রাকের আক্রমণের শিকার হচ্ছেন। মূলত, করোনার কারণে রোগ

প্রতিরোধ ক্ষমতা যখন তলানিতে গিয়ে ঠেকে, সেই সুযোগে এটি মানুষকে আক্রমণ করে। এর চিকিৎসা যেমন ব্যয়বহুল, তেমনি অপ্রতুলও। তাই আগে থেকেই সতর্ক থাকার প্রতি জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। ব্ল্যাক ফাঙ্গাস নিয়ে এখনও খুব বেশি গবেষণা হয়নি। কেন, কীভাবে এটি

ছড়িয়ে পড়ে, তার পরিষ্কার উত্তর দিতে পারেননি চিকিৎসকরা। তবে মাস্কের সঠিক ব্যবহার না হওয়ায় অনেকেই এই ছত্রাকের আক্রমণের শিকার হচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তারা। তাই মাস্ক থেকে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস রোধে ৪টি স্পষ্ট নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ১। ব্যবহৃত মাস্ক না ধুয়ে

পুনরায় ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। ২। একই মাস্ক একটানা ৬ ঘণ্টার বেশি ব্যবহার করা যাবে না। ৩। সাবান দিয়ে ভালোভাবে মাস্ক ধুতে হবে এবং অবশ্যই সম্পূর্ণরূপে শুকানোর পর ব্যবহার করতে হবে। ৪। ভেজা মাস্ক পরে থাকা যাবে না। black fungus in india এতো

গেল মাস্কের সঠিক ব্যবহার। ভয়াবহ এই ব্ল্যাক ফাঙ্গাস থেকে বাঁচতে আরও কয়েকটি বিষয়ের দিকে নজর রাখতে বলছেন চিকিৎসকরা। সেগুলো হলো- বেশি বেশি হাত ধুতে হবে, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে, অনিয়ন্ত্রিত স্টেরয়েড ব্যবহার বন্ধ রাখতে হবে। ব্ল্যাক ফাঙ্গাস বা মিউকোরমাইকোসিসে আক্রান্ত ছিলেন ওই ব্যক্তি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কয়েকদিন আগে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি।উল্লেখ্য, ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের উপসর্গ হলো- জ্বর, মাথাব্যথা, দৃষ্টি কমে যাওয়া, শ্বাসকষ্ট, বুকে ব্যথা, নাক ও চোখ লাল হয়ে যাওয়া, রক্তবমি ইত্যাদি।

Check Also

এক কোয়া রসুনে মেলে ৮ টি জটিল রোগ থেকে মুক্তি

এক কোয়া রসুনে মেলে ৮ টি জটিল রোগ থেকে মুক্তি

রান্নাবান্নার জন্য রসুন একটি প্রয়োজনীয় উপকরণ। খাবার রান্নার জন্যই সাধারণত রসুনের ব্যবহার বেশি হয়ে থাকে। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *