Friday , July 23 2021
Home / দেশ-বিদেশ / বাবা অসুস্থ হওয়ায় কৃষক পরিবারের এই মেয়েটি চাষাবাদ করে সংসারের দায়িত্ব নিয়েছে

বাবা অসুস্থ হওয়ায় কৃষক পরিবারের এই মেয়েটি চাষাবাদ করে সংসারের দায়িত্ব নিয়েছে

কন্যারা কোন অবস্থাতেই ছেলেদের থেকে পিছিয়ে নেই এই কথাটি আবারো হরিয়ানার আম্বালা বাসিন্দা অমরজিৎ কর দ্বারা প্রমাণিত হয়েছে। তিনি গত 11 বছর ধরে একা একা তার পরিবারকে চাষাবাদের সাহায্য এবং পরিচালনা করছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় কৃষক আন্দোলনের পাশাপাশি

হরিয়ানা রাজপথ থেকে 29 বছর বয়সী অমরজিৎ এর আলোচনাও সমানতালে হচ্ছে। আমি আপনাকে বলি অমরজিৎ এর যখন 18 বছর বয়স তার বাবা অসুস্থ হয়ে পড়ে যার কারণে তিনি কৃষি কাজ করতে পারছিলেন না। কিন্তু তাদের পুরো পরিবার কৃষিকাজের ওপরই নির্ভরশীল ছিল

অন্য কোনো আয়ের উৎস ছিল না। তারপরে অমরজিৎ সবকিছু ছেড়ে দেওয়ার পরিবর্তে নিজেই কৃষিকাজ করার সিদ্ধান্ত নিলেন। তারপরে পরিবারের সদস্য দায়িত্ব তার ওপর পড়ে এবং এখনও অবধি তিনি তাঁর দায়িত্বটি খুব ভালোভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন।অমরজিৎ কঠোর পরিশ্রম এবং

উৎসর্গের ফলস্বরূপ তার ভাই ভালোভাবে পড়াশোনা করতে পেরেছিল এবং তিনি আজ একজন সরকারিজিবী।অমরজিৎ এখন কৃষিতে যথেষ্ট অভিজ্ঞ হয়ে গেছেন এবং গ্রামের সমস্ত কৃষক ও তার কাছে কৃষি কাজ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করতে আসেন। যেমন কোন মৌসুমে কোন ফসল

রোপণ করতে হবে এবং কোন সার চাষের জন্য ব্যবহার করা উচিত যাতে ফসলের ফলন ভালো হয়। যখন তার বাবা অসুস্থ হয়ে পুরোপুরি বিছানায় পড়ে যায় তখন কঠোর পরিশ্রমের ভিত্তিতে কৃষি কাজ চালাতে পেরেছেন তিনি। তিনি প্রতিদিন ভোর 5 টা 50 মিনিটে উঠিয়ে মাঠে

পশুপাখিদের খাওয়াতে এবং সারাদিন মাঠে থাকতেন। তিনি খুব অল্প বয়স থেকেই শস্যের সাথে কথা বলতে শুরু করেছিলেন এবং ফসল ফলায় পরে তিনি নিজেই এটি কাটতেন তার পরে তিনি তা বাজারে বিক্রি করতেন। এই কারণে অমরজিৎ লেডি ফার্মার নামে পরিচিত। কিন্তু

আশ্চর্যের বিষয় কৃষিকাজে এত পরিশ্রম করার পরেও অমরজিৎ তার পড়াশোনার হাল ছেড়ে দেননি এবং পাঞ্জাব থেকে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন। তিনি কৃষি কাজের পাশাপাশি গৃহকর্মেও সমান পারদর্শী। পেজ টি ট্রাক্টর চালানো এবং পশু পাখিদের ও খাওয়ান। অমরজিত জৈব

চাষ শুরু করেছেন। অভিজিতের এই কঠোর পরিশ্রম এবং কাছ থেকে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রতিনিধি ও তার সাথে দেখা করতে এসেছিলেন এবং তার কাজের খুব প্রশংসা করেছিলেন। সেই প্রতিনিধি জমিতে লাগানোর জন্য অমর জিতের কীটনাশক, বীজ , ফসল

সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করেছিল। আজকের সময় হরিয়ানার অমরজিৎ তার কৃষিতে অনেক এগিয়ে এসেছেন। তিনি কৃষিকাজে এতটাই দক্ষ হয়ে উঠেছেন যে বড় বড় কৃষকরা তার সাথে দেখা করতে অস্বীকার সম্পর্কে তথ্য পেতে আসে।

Check Also

৮৫ বছরের বৃদ্ধা নারী বয়ফেন্ড খুঁজছেন ৩৫বছরের

৮৫ বছরের বৃদ্ধা নারী বয়ফেন্ড খুঁজছেন ৩৫বছরের!

৮৫ বছরের বৃদ্ধা নারী বয়ফেন্ড খুঁজছেন ৩৫বছরের !- সঙ্গীর সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে চান। তাই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *