Tuesday , December 7 2021
Home / বিনোদন / “বাপ দেখেনি ছাগল, ছেলে মুরগি দেখেই পাগল”, সায়নীর মন্তব্যে নেটিজেনদের..

“বাপ দেখেনি ছাগল, ছেলে মুরগি দেখেই পাগল”, সায়নীর মন্তব্যে নেটিজেনদের..

সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনমহলের আক্রমণের শিকার সায়নী ঘোষ। সায়নীর করা পোস্টের কমেন্ট সেকশনের নীচে অশ্লীল মন্তব্য ভরে গেল সোশ্যাল মিডিয়া। অনেকেই আবার সায়নীকে নিয়ে কটুক্তি করতেও ছাড়েননি। “দেবাংশু ভট্টাচার্য দেব ফ্যান” নামক একটি ফেসবুক প্রোফাইল

থেকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে। সেই নিয়ে শুরু হয়েছে বাকবিতণ্ডা। ওই ফেসবুক প্রোফাইল থেকে স্ট্যাটাসটিতে লেখা রয়েছে, “আমি প্রতীজ্ঞা করছি, যেখানে বোন রয়েছে, সেখানে বাংলাকে ভাগ করতে দেব না”। লেখার শেষে ট্যাগ করা হয়েছে সায়নী ঘোষকে। একইসঙ্গে

হ্যাশট্যাগ দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম লেখা হয়। সেখানেই সায়নী কমেন্ট করে লেখেন, “এদের অবস্থা খুবই শোচনীয়। বাপ দেখেনি ছাগল, ছেলে মুরগি দেখেই পাগল কেস”। সায়নীর এই মন্তব্যের পরেই বেশ কয়েকজন নেটিজেন অশালীন মন্তব্য করেন। নেটিজেন মহলের মন্তব্যের পাল্টা জবাব দেননি সায়নী ঘোষ। আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেন মহলের আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছিল সায়নী ঘোষকে।

কিছুদিন আগে বিজেপি নেতা তথাগত রায় সায়নীকে আক্রমণ করে টুইট করে লেখেন, “শিবলিঙ্গে কনডম পরিয়ে আমার মতন তাবৎ হিন্দুকে, বিশেষত শিবভক্তদের, চরম অপমান করেছেন সায়নী ঘোষ। তাকে উত্তরোত্তর সম্মান দিয়ে হিন্দুদের কি বলতে চাইছেন মমতা ? আমি ভোটে জিতেছি, এবার যা খুশি করব। তোরা অসহায় হিন্দুরা কি করতে পারিস?” তথাগতর এই মন্তব্য নিয়ে রাজ্য রাজনীতি জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়ে নির্বাচনী প্রচারে ঝড় তুলেছিলেন সায়নী ঘোষ। আসানসোল দক্ষিণ কেন্দ্রের প্রার্থী ছিলেন তিনি। কিন্তু সেখানে তিনি হেরে যান তবুও সায়নী ঘোষের লড়াকু মনোভাবকে সম্মান জানিয়ে দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন সায়নী। তৃণমূল যুব সভাপতি হয়েছেন তিনি। নতুন দায়িত্ব পেয়ে সায়নী বলেন, “২০২৪ সালে আরও বড় খেলা হবে। দিদি গুরুদায়িত্ব

দিয়েছেন। সেই দায়িত্ব পালন করব”। তিনি আরো বলেন, “গুরুদায়িত্ব এটা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে কৃতজ্ঞ। দিদি বলেছেন, এটা অনেক বড় দায়িত্ব। মনে প্রাণে করতে হবে”।

Check Also

‘চিরকুমার’ রতন টাটার বাস্তব প্রেমকাহিনী হার মানাবে সিনেমার গল্পকেও

‘চিরকুমার’ রতন টাটার বাস্তব প্রেমকাহিনী হার মানাবে সিনেমার গল্পকেও

ভারতের অন্যতম ব্যবসায়ী হলেন টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান রতন টাটা (Ratan Tata)। তাঁর পরিচয় আলাদাভাবে দেওয়ার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *