Home / লাইফ-স্টাইল / বদলে গেল রেশন কার্ড বানানোর নিয়ম-কানুন!

বদলে গেল রেশন কার্ড বানানোর নিয়ম-কানুন!

বদলে গেল রেশন কার্ড বানানোর নিয়ম-কানুন! চালু হলো নতুন নিয়ম…. – করোনা পরিস্থিতিতে ৮১ কোটির বেশি রেশন কার্ড হোল্ডারদের বিনামূল্যে রেশন দিয়েছে কেন্দ্র সরকার ৷ মার্চ মাস থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত সুবিধা মিলবে ৷ সরকারি বিভিন্ন যোজনার সুবিধা

পাওয়ার জন্য রেশন কার্ড থাকা বেশ জরুরি ৷ পাশাপাশি অন্যান্য ক্ষেত্রে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট হিসেবে দেখা হয়ে থাকে ৷ দেখে নিন কীভাবে রেশন কার্ড বানাবেন ? ভারতে তিন প্রকারের রেশন কার্ড হয় ৷ দারিদ্র সীমার ওপরে থাকা মানুষের জন্য এপিএল (APL), দারিদ্র

সীমার নিচে থাকা মানুষের জন্য বিপিএল (BPL) আর সবচেয়ে গরিব পরিবারগুলির জন্য অন্ত্যোদয়া (Antyodaya) ৷ রাজ্য সরকারের তরফে নাগরিকদের রেশন কার্ড জারি করা হয়ে থাকে, যা একটি পরিচয়পত্র হিসেবেও কাজ করে ৷ রেশন কার্ড তৈরি করার জন্য বেশ কিছু শর্ত

পূরণ করতে হয় ৷ BPL ও Antyodaya যোজনার রেশন কার্ড তৈরির জন্য বেশ কিছু ডকুমেন্ট জমা করতে হয় ৷ সরকারের ফুড সিকিউরিটি অ্যাক্ট নতুন রেশন কার্ড তৈরির জন্য বেশ কিছু শর্ত রেখেছে ৷

কে বানাতে পারবেন রেশন কার্ড?
দেশের যে কোনও নাগরিক রেশন কার্ড তৈরি করতে পারবেন >>নতুন রেশন কার্ড তখনই বানানো যাবে যদি আপনার পুরনো রেশন কার্ড না থাকে ৷ একজনের দুটি রেশন কার্ড থাকতে পারে না ৷ এটি অপরাধ হিসেবে দেখা হবে ৷ ১৮ বছর হওয়ার পর রেশন কার্ড তৈরি করা যাবে ৷ ১৮ বছরের কম যাদের বয়স তাদের নাম বাবা-মায়ের রেশন কার্ডে সামিল থাকে ৷

পরিবারের প্রধানের নামে রেশন কার্ড তৈরি করা হয় ৷
সমস্ত রাজ্য সরকারের খাদ্য বিভাগ নতুন রেশন কার্ড তৈরির দায়িত্বে থাকে ৷ রাজ্য সরকার রেশন কার্ড তৈরি করে থাকে ৷ ফলে রেশন কার্ড তৈরির নিয়ম আলাদা আলাদা রাজ্যে আলাদা হয় ৷ প্রত্যেক রাজ্যে আবেদন জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া আলাদা হয় ৷ অফলাইন ও অনলাইন দু’ভাবেই রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করা যেতে পারে ৷ উধারন হিসেবে বিহারে রেশন কার্ড তৈরি করতে হলে প্রথমে বিহার সরকারের

ওয়েবসাইট http://epds.bihar.gov.in/Default.aspx থেকে ফর্ম ডাউনলোড করতে হবে ৷ পঞ্চায়েত থেকেও ফর্ম নিতে পারেবন ৷ ফর্মে সমস্ত তথ্য ফিলআপ করতে হবে ৷ এরপর নিজের ও পরিবারের সমস্ত সদস্যের নাম ও ছবি দিতে হবে ৷ মোবাইল নম্বর ও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ডিটেল দিতে হবে ৷ এপ্রিল মাস থেকে বিহারে নতুন পদ্ধতিতে রেশন কার্ড তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে ৷ সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তিতে

জানানো হয়েছে বিহারে বিনামূল্যে রেশন কার্ড তৈরি করা হচ্ছে ৷ পাশাপাশি মাত্র ৭দিনের মধ্যে রেশন কার্ড তৈরি করে আবেদনকারীকে দেওয়া হচ্ছে ৷ রেশন কার্ড তৈরির জন্য পরিচয়পত্র হিসেবে আধার কার্ড, সরকারি ব্যাঙ্কের পাসবুক, ভোটার আইডি কার্ড, পাসপোর্ট, হেলথ কার্ড বা ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যবহার করা যেতে পারে ৷ এছাড়া আয়ের প্রমাণ পত্র, ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে বিদ্যুতের বিল, গ্যাস কানেকশন বুক,

টেলিফোন বিল ব্যবহার করতে পারবেন ৷কিছু রাজ্যে রেশন কার্ড বিনামূল্যে তৈরি করা হয় তো কিছু রাজ্যে রেশন কার্ড বানানোর জন্য চার্জ নেওয়া হয়ে থাকে ৷ আলাদা আলাদা বর্গের জন্য রেশন কার্ডের আলাদা ফি হয় ৷ দিল্লিতে রেশন কার্ড তৈরি করলে ৫ থেকে ৪৫ টাকা পর্যন্ত ফি দিতে হতে পারে ৷ সূত্র: নিউজ ১৮ বাংলা

About By Moni Sen

Check Also

ফিক্সড ডিপোজিট

ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার বাড়ালো SBI, গ্রাহকদের জন্য বিশাল সুখরব!

ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার বাড়ালো SBI, গ্রাহকদের জন্য বিশাল সুখরব! – দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x