Tuesday , June 22 2021
Home / লাইফ-স্টাইল / পোস্ট অফিসের নতুন স্কিমে ‘টাকা ডবল’, মাত্র ১০০০ টাকা দিয়েই শুরু করতে পারেন বিনিয়োগ

পোস্ট অফিসের নতুন স্কিমে ‘টাকা ডবল’, মাত্র ১০০০ টাকা দিয়েই শুরু করতে পারেন বিনিয়োগ

পোস্ট অফিসের নতুন স্কিমে ‘টাকা ডবল’, মাত্র ১০০০ টাকা দিয়েই শুরু করতে পারেন বিনিয়োগ- সাধারণ মানুষের কাছে পোস্ট অফিসের স্কিমগুলি বেশ পছন্দের। পোস্ট অফিস ছোট ছোট গ্রাম থেকে শুরু করে বড় বড় শহর গুলিতেও রয়েছে। যে কোনো মানুষ নিজের সামর্থ

অনুযায়ী নিজের জন্য স্কিম নির্বাচন করতে পারেন। সাধারণের জন্য অনেক ধরণের স্কিম রাখা হয়। এর মধ্য একটি স্কিম আছে ‘কিষান বিকাশ পত্র’। এই স্কিমে বিনিয়োগ করা টাকা দ্বিগুণ হয়ে যাবে। ‘কিষান বিকাশ পত্র’ এই স্কিম কেবল ১০০০ টাকা বিনিয়োগ করেই শুরু করা যাবে।

একটা নির্দিষ্ট সময়ের পর বিনিয়োগ করা টাকার দ্বিগুণ টাকা পাওয়া যাবে। ইন্ডিয়া টিভির পয়সাস্ টিম এই স্কিম সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নিয়ে এসেছে সাধারণের সামনে। ‘কিষান বিকাশ পত্র’ স্কিম হল ভারত সরকারের এককালীন বিনিয়োগের পরিকল্পনা। এই প্রকল্পে যে পরিমাণ টাকা

বিনিয়োগ করা হবে তার দ্বিগুণ টাকা ফেরত পাবেন এই স্কিমের স্কিম হোল্ডাররা। এই স্কিমটিও জনসাধারণের মধ্যে জনপ্রিয় কারণ এটি টাকা দ্বিগুণ করতে পারে।‘কিষান বিকাশ পত্র’ একটি সরকারী প্রকল্প। এটি দেশের যে কোনও পোস্ট অফিস থেকে খোলা যেতে পারে। দিল্লি

মুম্বাইয়ের মতো মহানগরীর যে কোনও পোস্ট অফিস থেকে কিংবা গ্রামের পোস্ট অফিস থেকে ‘কিষান বিকাশ পত্র’ কেনা যায়। তিনটি উপায়ে এটি কিনতে পারেন গ্রাহকরা- ১) সিঙ্গেল হোল্ডার সার্টিফিকেট- এই জাতীয় শংসাপত্রটি গ্রাহকের নিজের জন্য বা কোনও নাবালিকার

জন্য কেনা হয়। ২) জয়েন্ট ‘এ’ অ্যাকাউন্ট সার্টিফিকেট- এক্ষেত্রে দুজন হোল্ডারই টাকা দিতে পারেন অথবা যে হোল্ডার বেঁচে আছেন তাকে দিতে হয়। ৩) জয়েন্ট ‘বি’ অ্যাকাউন্ট সার্টিফিকেট- এক্ষেত্রে হোল্ডারদের মধ্যে একজন টাকা দিলেই হবে অথবা যে হোল্ডার বেঁচে আছে

তাকে দিতে হয়। ‘কিষান বিকাশ পত্র’-এ সর্বনিম্ন বিনিয়োগ করা যায় ১০০০ টাকা। এতে কোনো সর্বাধিক বিনিয়োগের সীমা নেই। কেউ যদি এক লাখ টাকা সরাসরি বিনিয়োগ করেন তবে ম্যাচিউরেশনের সময় সে তাহলে দুই লক্ষ টাকা পাবে। এই সার্টিফিকেট গ্রাহকরা ১০০০ টাকা, ৫০০০ টাকা, ১০০০০ এবং ৫০০০০ টাকা দিয়েও কিনতে পারেন। গ্রাহক ১ বছর, ২ বছর, ৩ বছর এবং ৫ বছরের জন্যও খুলতে পারেন এই

স্কিমটি খুলতে পারেণ। পোস্ট অফিসের এই স্কিম হোল্ডাররা ১ – ৩ বছরের জন্য ৫.৫% পর্যন্ত রিটার্ন পাবেন। ৫ বছরের জন্য করলে ৬.৭% রিটার্ন পাবেন। গ্রাহক যদি স্কিমটি ম্যাচিওর হওয়ার আগেই টাকা তুলে নেন তবে সেটিতে কেবল পোস্ট অফিসের সঞ্চয়ী অ্যাকাউন্টের মতো সুদ পাবেন গ্রাহকরা।

About Moni Sen

Check Also

ইন্টারনেট ছাড়াই এখন বাড়িতে বসেই করতে পারবেন আধার কার্ডের একাধিক ভুল সংশোধন

ইন্টারনেট ছাড়াই এখন বাড়িতে বসেই করতে পারবেন আধার কার্ডের একাধিক ভুল সংশোধন

ইন্টারনেট ছাড়াই এখন বাড়িতে বসেই করতে পারবেন আধার কার্ডের একাধিক ভুল সংশোধন- বর্তমানকালে ভারতবাসীর কাছে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *