Tuesday , May 11 2021
Home / লাইফ-স্টাইল / পুজোর আগে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার নিয়ে বড় ধরনের পরির্বতন!

পুজোর আগে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার নিয়ে বড় ধরনের পরির্বতন!

পুজোর আগে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার নিয়ে বড় ধরনের পরির্বতন! – বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসব শুরু হবার আর মাত্র কয়েকদিন।করোনা আবহে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি তুঙ্গে৷ মহামারী চলছে তবুও, উৎসবে মেতে উঠার প্রস্তুতিও নিচ্ছে সাধারণ মানুষ৷ ঘর গোছানোর কাজ করছে

সবাই, নিজের সাধ্য মত। কারণ, করোনা তে সবকিছু ওলট পালট হয়ে গেছে।সবারই আয় উপার্জন কম হলেও সারা বছর অপেক্ষায় থাকার পর, দুর্গাপুজোতে আনন্দ করার চেষ্টা চলছে৷ তবে, উৎসবের আগে সামান্য বিড়ম্বনায় পড়ছেন আমজনতা। এই মুহূর্তে রান্নার গ্যাসের জোগান

নিয়ে অসুবিধায় ভুগছেন অনেকই\কলকাতা ও সংলগ্ন এলাকায় গ্যাসের সাপ্লাই অনেকখানি কমেছে৷ পুজোর সময় সেই প্রভাব গ্যাসের সাপ্লাই ব্যবস্থার ওপর পড়তে পারে- এই নিয়ে আশঙ্কা৷ কারণ, প্রতিবছর পুজোর সময় রাস্তাঘাটে যানবাহন নিয়ন্ত্রিত ভাবে চালানো হয়৷ এর ফলে

ডিস্ট্রিবিউটরের গোডাউনের সিলিন্ডার পৌঁছতে ভীষণ অসুবিধে হয়পুজোর ছুটি এবং উৎসবের যান নিয়ন্ত্রন- এই দুই এর যাঁতাকলে জট পেকে যায় সাপ্লাইয়ে। পুজোর দিন দশেক দেরি হলেও, যোগানে ইতিমধ্যেই তার প্রভাব পরে গেছে৷ সাধারণত, গ্যাস বুকিং করার পর দু’দিনের মধ্যে

গ্রাহকদের বাড়িতে সিলিন্ডার পৌঁছে দেওয়া হয়৷ তবে এই মুহূর্তে দু’দিনের মধ্যে গ্যাস ডেলিভারি বেড়ে গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৫ দিনএর বেশি৷ এমনকি এক সপ্তাহ কেটে যাওয়ার পর মিলছে গ্যাস সিলিন্ডার৷ ডিলারদের দাবি, পুজো চলাকালীন সিলিন্ডার ডেলিভারি দেওয়া নাও হতে পারে,

এই ভয়ে অনেক গ্রাহক আগাম গ্যাস বুকিং করছেন৷ আনলক পর্বে গ্যাস বুকিংয়ে কোনোরকম বাধা না থাকায় সকলেই বুক করছেন। এমনিতেই পুজোতে সিলিন্ডার মজুত রাখার ইচ্ছেতে প্রতি বছর ‘প্যানিক’ বুকিং হয়, এবং এতেই বেড়ে যায় চাহিদা।

About Moni Sen

Check Also

কোন ইলিশ পদ্মার আর কোনটির পেটে ডিম, জে’নে নিন

কোন ইলিশ পদ্মার আর কোনটির পেটে ডিম, জে’নে নিন

মাছের রাজা ইলিশ। শুধু নামেই নয়, কাজেও এর পরিচয় মেলে। বাংলাদেশের মোট মৎস্য উৎপাদনের প্রায় ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x