Home / লাইফ-স্টাইল / পিতা-মাতার এই ছোট্ট ভুল বাচ্চাদের দুর্বল করে তোলে, জানুন এবং সচেতন হন

পিতা-মাতার এই ছোট্ট ভুল বাচ্চাদের দুর্বল করে তোলে, জানুন এবং সচেতন হন

পিতা-মাতার এই ছোট্ট ভুল বাচ্চাদের দুর্বল করে তোলে, জানুন এবং সচেতন হন – শিশুরা শুরুতে তাদের পিতামাতার সাথে সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করে। এ কারণে বাচ্চাদের মন, মেজাজ এবং আচরণের উপরে পিতামাতার সবচেয়ে বেশি প্রভাব রয়েছে। এটি বহুবার লক্ষ্য করা

গেছে যে বাবা-মায়েরা কিছু অনিচ্ছাকৃত ভুল করেন, যার কারণে বাচ্চাদের মস্তিষ্কে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে, যার কারণে তারা জীবনে অনেক চ্যালেঞ্জ এবং সমস্যার মুখোমুখি হন। শিশুরা ধীরে ধীরে ভাইবোন, বাবা-মা, পরিবারের অন্যান্য সদস্য, বন্ধুবান্ধব এবং সমাজে বাঁচতে শেখে, তবে পিতামাতার সহায়তা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে বিবেচিত হয়। আপনি যদি কোনও ধরণের ভুল করেন তবে তা শিশুদের জীবনে প্রভাব

ফেলবে। আজ আমরা আপনাদের এমন কয়েকটি ভুল সম্পর্কে তথ্য দিতে যাচ্ছি, যার দিকে আপনার মনোযোগ দেওয়া দরকার। যেমনটি আমরা জানি, বর্তমান সময়ে সমস্ত মানুষের জীবন খুব ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। ব্যস্ত জীবনধারার কারণে পিতামাতারা বাচ্চাদের সময় দিতে অক্ষম হন, যার কারণে শিশুদের মানসিক বিকাশ এবং সামাজিক বিকাশ প্রভাবিত হয়। ব্যস্ত বাবা-মায়ের কারণে, বাচ্চারা স্বাধীনতা পায় এবং পিতামাতার সঠিকভাবে শিশুদের ওপর নজরদারি করতে সক্ষম হয় না, যার কারণে শিশুরা তাদের মন অনুযায়ী কাজ করে। বাচ্চারা যদি

কোনও ভুল করে তবে পিতামাতারা এটিকে গোপন করে এবং এমনকি মিথ্যা বলে। এই কারণে, আপনার বাচ্চাদের ব্যস্ত জীবন থেকে কিছুটা সময় বের করে নিতে হবে। শিশুরা তাদের পিতামাতার কাছ থেকে কিছু জোর করে। পিতামাতারা তাদের সন্তানের সমস্ত ইচ্ছা পূরণ করতে চান। পিতামাতারা তাদের বাচ্চাদের খুব ভালবাসেন, তারা তাদের সন্তানের সমস্ত সুখের যত্ন নেন। বাচ্চাদের সুখী রাখার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা

করা হয়, তবে মনোবিজ্ঞানীদের মতে, যদি শৈশব থেকেই শিশুদের সমস্ত ইচ্ছা পূরণ হয় তবে তাদের ব্যবহারিক বিকাশ সঠিকভাবে হয় না। আমাদের সবার জীবনে আচরণগত বিকাশ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। পিতামাতাদের মনে রাখতে হবে যে কোনও কোনও অনুষ্ঠানে আপনি আপনার সন্তানের ইচ্ছাগুলি প্রত্যাখ্যান করতে পারেন। আপনার বাচ্চাদের সঠিক এবং ভুলকে বোঝানোর চেষ্টা করুন, এটি বাচ্চাদের জীবনে শৃঙ্খলা

আনবে। বাচ্চাদের একগুঁয়েমির পিছনে ছুটে যাওয়া ঠিক নয়। বাচ্চাদের মন খুব চঞ্চল, সঠিক এবং ভুল কী? এ বিষয়টি মোটেই বোঝা যায় না। অনেক বাবা-মা আছেন যারা তাদের সন্তানদের জীবন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার ভয়ে শৈশবকাল থেকেই তাদের বাচ্চাদের অনেক বেশি বন্ধনে আবদ্ধ করেন, তবে এই ভুলের কারণে সন্তানের মানসিক বিকাশ সঠিকভাবে হয় না। পিতামাতারা চান তাদের সন্তানরা তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী বেঁচে থাকুক, তবে অনেক সময় এমন হয় যে তাদের পিতামাতারা তাদের আশায় বসে থাকে। এ জাতীয় পরিস্থিতিতে বাবা-মা ক্রমাগত

তাদের বাচ্চাদের উপর মানসিক চাপ দেওয়ার চেষ্টা করেন। আপনি যদি এইরকম ভুল করেন তবে এই কারণে শিশুর মস্তিষ্ক সঠিকভাবে বিকাশ করতে সক্ষম হয় না কেবল তাই নয়, বাচ্চার শেখার ক্ষমতাও প্রভাবিত হয়। পিতামাতারা প্রায়শই তাদের বাচ্চাদের উন্নতি করার চেষ্টা করেন যার কারণে তারা অনেক সময় শিশুদের মারধর করেন এবং তিরস্কার করেন তবে এই ভুলের কারণে শিশুটি হতাশায় পড়ে যেতে পারে। শিশুটিতে মানসিকতা বিরোধী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদি আপনি আপনার বাচ্চাদের নিন্দা করেন তবে এটি পিতামাতার প্রতি একটি ভুল

মনোভাব সৃষ্টি করে। শিশুরাও পড়াশুনায় যথাযথভাবে অনুভূতি বোধ করে না, তাই পিতামাতাদের মনে রাখতে হবে যে তাদের মনকে শান্ত রাখার জন্য বাচ্চাদের বকাঝকা করা এবং মারধর করা যাবেনা। চেষ্টা করুন আপনি যদি বাচ্চাদের আস্থা অর্জন করেন তবে শিশুটি নিজে থেকে উন্নতি করবে।

About By Moni Sen

Check Also

রান্নাঘর পরিষ্কার করার ১০টি ঘরোয়া টিপস

রান্নাঘর পরিষ্কার করার ১০টি ঘরোয়া টিপস

রান্নাঘর পরিষ্কার করার ১০টি ঘরোয়া টিপস – রান্না করতে গিয়ে তেলের ছিটে মশলাপাতি পরে কিচেন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x