Wednesday , May 12 2021
Home / স্বাস্থ্য / দাঁত শিরশিরের কারণ ও ঘরোয়া প্রতিকার

দাঁত শিরশিরের কারণ ও ঘরোয়া প্রতিকার

দাঁত শিরশিরের কারণ ও ঘরোয়া প্রতিকার – দাঁত নিয়ে অনেকেই অনেক সমস্যায় ভুগে থাকেন। দাঁত ব্যথা, দাঁত ক্ষয়, অকালে দাঁত পড়ে যাওয়ার পাশাপাশি দাঁত শিরশির করাও জটিল একটি সমস্যা। এই দাঁত শিরশির করার যন্ত্রণা একমাত্র সেই অনুভব করতে পারেন, যিনি এই

সমস্যায় ভুগছেন। অনেকেই মনে করেন, এই সমস্যা সারাজীবন নিজের সঙ্গে বয়ে বেড়াতে হবে। আসলে ধারণাটি একদমই ভুল। সাধারণ সংবেদনশীলতা দূর করার একাধিক সহজ উপায় রয়েছে, আর সেগুলোর বেশিরভাগই হছে দাঁতের যত্ন নেয়া। তবে কিছু ক্ষেত্রে দন্ত্য চিকিৎসকেরও প্রয়োজন হতে পারে। স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে দাঁত শিরশির করার কারণ ও এর প্রতিকারে আপনার করণীয়

সম্পর্কে জানানো হয়েছে। চলুন তবে সেগুলো জেনে নেয়া যাক-

ত শিরশিরের কারণ
বাহ্যিক কেনো কারণে দাঁতে থাকা স্নায়ুতে প্রদাহ সৃষ্টি হলেই সাধারণত এই সংবেদনশীলতা দেখা দেয়। খালি চোখে এই প্রদাহ দেখা না গেলেও ব্যথা কিংবা শিরশির অনুভূতি বেশ তীব্র। যুক্তরাষ্ট্রের দন্ত্য চিকিৎসক জফ্রি আর. মরিস (ডিএমডি, এমএস) বলেন, দাঁত ঘষা, চেপে দাঁত ব্রাশ করা, ‘ক্যাভিটি’ আর সংক্রমণই হলো দাঁতের সংবেদনশীলতা কারণ। প্রাথমিক অবস্থায় সাবধান হলে সহজেই তা সারিয়ে তোলা সম্ভব।

ঘরোয়া টোটকা
নরম ‘ব্রিসল’য়ের ব্রাশ ব্যবহার করতে হবে দাঁত ব্রাশ করা ক্ষেত্রে। ‘টুপপেস্ট’ কেনার সময় দেখে নিতে হবে তাতে ‘ফ্লুরাইড’ আছে কি-না। ডা. মরিস বলেন, অনেকেই ঘুমের মধ্যে দাঁতে দাঁত চেপে রাখেন যে কারণে সংবেদনশীলতা দেখা দিতে পারে। সেক্ষেত্রে ঘুমানোর সময় ‘গার্ড’

ব্যবহার করতে হবে। আর দাঁতের সার্বিক সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করার জন্য নিয়মিত চিকিৎসকের কাছ থেকে পরীক্ষা করিয়ে নেয়া সবচাইতে ভালো
উপায়। এতে যেকোনো সমস্যা প্রাথমিক অবস্থাতেই শনাক্ত করা সম্ভব হবে। খাদ্যাভ্যাসের সমস্যা যুক্তরাষ্ট্রের ‘স্মাইল ম্যাজিক ফ্যামিলি ডেন্টিস্ট্রি’র ডা. ক্রেইগ কোপল্যান্ড (ডিএমডি) বলেন, দাঁতের ‘এনামেল’এর আস্তর ক্ষয়ে যাওয়া, ‘জিনজাইভাল রিসেশন’, চেপে দাঁত ব্রাশ

ইত্যাদি সংবেদনশীলতা মূল কারণ হলেও খাদ্যাভ্যাসও এই সমস্যার পেছনে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা থাকে। ‘কার্বোনেইটেড’ পানীয়, অম্লীয় পানীয়, বরফ, এমনকি প্রচণ্ড গরম পানীয় পান করার কারণেও সংবেদনশীলতার তীব্রতা বাড়তে পারে। অম্লীয় বা টক খাবার আর পানীয় দাঁতের সবচাইতে বেশি ক্ষতি করে।

ডাক্তারের সাহায্য নেয়া
ঘরোয়া চিকিৎসায় কাজ না হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া জরুরি। অনেকেই ব্যাপারটাকে অবহেলা করেন, সহ্য করে যান, মনে করেন আপনা থেকেই সেরে যাবে। এমনটা করা উচিত হবে না। সংবেদনশীলতা দূর করে এমন বিশেষ ‘টুথপেস্ট’ ব্যবহার করতে হবে।

About Moni Sen

Check Also

কোষ্ঠকাঠিন্য ও মাথাব্যথার মহৌষধ হিসেবে কাজ করে পটলের বীজ

কোষ্ঠকাঠিন্য ও মাথাব্যথার মহৌষধ হিসেবে কাজ করে পটলের বীজ! রইল ব্যবহারবিধি

কোষ্ঠকাঠিন্য ও মাথাব্যথার মহৌষধ হিসেবে কাজ করে পটলের বীজ! রইল ব্যবহারবিধি – পটল এক ধরণের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x