Wednesday , October 21 2020
Home / স্বাস্থ্য / থাইরয়েড সমস্যা নিয়ন্ত্রণের অব্যর্থ উপায়
Image: google

থাইরয়েড সমস্যা নিয়ন্ত্রণের অব্যর্থ উপায়

বর্তমানে থাইরয়েড সমস্যা এখন স্বাভাবিক হয়ে দাঁড়িয়েছে। মানব শরীরের জন্য থাইরয়েড হরমোনের একটি নিদৃর্ষ্ট মাত্রা রয়েছে। এই নিদৃর্ষ্ট মাত্রার কম বা বেশি হরমোন উৎপাদন হলেই শরীরের উপর নানা রকম বিরুপ প্রভাব পড়তে শুরু করে। শুরু হয়ে যায় থাইরয়েড সমস্যা। পুরুষদের তুলনায় নারীদের এই থাইরয়েড সমস্যা বেশি দেখা যায়।

থাইরয়েড হরমোন আমাদের শরীরের জন্য আবশ্যক তবে, নিদৃর্ষ্টমাত্রার তারতম্য হলেও সমস্যা শুরু হয়ে যায়। আমাদের স্বরযন্ত্রের দুই পাশে বিদ্যমান গ্রন্থির নাম থাইরয়েড। হরমোনের উৎপাদান ব্যহত হলে কিংবা বেশি উৎপাদন হলে শুরু হয়ে যায় থাইরয়েড সমস্যা। তবে কিছু নিয়ম মেনে চলতে পারলে সহজেই থাইরয়েড সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন।

এক নজরে দেখে নিন থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণের অব্যর্থ উপায়সমূহ-

১। শরীরে থাইরয়েড নিয়ন্ত্রনে রাখা খুব জরুরী নতুবা সমস্যা। তবে থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য খুব জরুরী একটি বিষয় হলো প্রোটিন। এই প্রোটিন থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণের অন্যতম মাধ্যম। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার রাখা জরুরী। যেমন- ডিম, মুরগির মাংস, পণির. চিজ ইত্যাদ প্রোটিনসমৃদ্ধ খাবার। এতে করে থাইরয়েড গ্ল্যান্ড ঠিকমত কাজ করবে, প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার থাইরয়েড গ্ল্যান্ডকে সহায়তা করে।

২। থাইরয়েডের সমস্যা কমাতে খুবই কার্যকরী উপায় হলো আয়োডিনযুক্ত খাবার। আয়াডিনসমৃদ্ধ লবণ নিয়মিত রান্নায় ব্যবহার করুন। এছাড়াও কলা, দুধ, গাজর, সামুদ্রিক মাছ, স্ট্রবেরি, সবুজ শাকসবজি এই জাতীয় খাবারগুলোতে প্রচুর পরিমাণে আয়োডিন পাওয়া যায়। তাই নিয়মিত পাতে রাখার চেষ্টা করুন। এতে থাইরয়েডের সমস্যা কমে যাবে।

৩। যাদের থাইরয়েড সমস্যা রয়েছে তাদের নিয়মিত শারীরিক ব্যয়াম করা আবশ্যক। সাঁতার বা সাইকেল চালানো হতে পারে থাইরয়েড নিয়ন্ত্রণের জন্য অন্যতম উপকারি ব্যয়াম। ব্যয়ামের পাশাপাশি সঠিক ডায়োট থাকতে হবে। তবেই থাইরয়েড সমস্যা আপনার হতে ১০০ হাত দূরে থাকবে।

৪। মানব শরীরের জন্য পর্যাপ্ত ঘুমের কোন বিকল্প নেই। প্রতিদিন কমপক্ষে ৭ হতে ৮ ঘণ্টা পরিমত ঘুম দরকার। তবে বর্তমান সময়ে অনেকে রয়েছেন যে, সারারাত জেগে ভোরের দিকে ঘুমাতে যান। এটি তাদের জন্য মোটেও সঠিক জীবন যাপন পদ্ধতি নয়।

থাইরয়েড গ্রন্থির ভালোভাবে কাজ করার জন্য রোজ পর্যাপ্ত ঘুম অত্যন্ত আবশ্যক। তবে আপনি যদি থাইরয়েড সমস্যা কমাতে চান তাহেল অবশ্যই রাতেই আপনাকে পর্যাপ্ত ঘুমাতে হবে। নুতবা থাইরয়েড সমস্যা আপনার পিছ ছাড়বে না। তাই প্রতিরাতে পরিমিত ঘুমান।

Check Also

আপনার সামনে হঠাৎ কেউ স্ট্রোক করলে কি করবেন? জে’নে নিন জীবন বাঁচানোর পদ্ধতি

আপনার সামনে হঠাৎ কেউ স্ট্রোক করলে কি করবেন? জে’নে নিন জীবন বাঁচানোর পদ্ধতি – স্ট্রোক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
error: Content is protected !!