Saturday , July 24 2021
Home / বিনোদন / গায়ের রংয়ের জন্য অপমানিত হলেও নিজেকে প্রমাণ করে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন আশীষ বিদ্যার্থী

গায়ের রংয়ের জন্য অপমানিত হলেও নিজেকে প্রমাণ করে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন আশীষ বিদ্যার্থী

গায়ের রংয়ের জন্য অপমানিত হলেও নিজেকে প্রমাণ করে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন আশীষ বিদ্যার্থী- সিনেমা জগতে এই নামটির সাথে অনেকের জীবনের মিল আছে।প্রতি বছরই অনেক ছেলে মেয়ে নিজেকে অভিনয় জগতে প্রতিষ্ঠিত করতে চেষ্টা চালায়।সবাই সফলতা অর্জন

করে না।আবার অনেকে করতে সক্ষম হয়।বলিউডে এমন অনেক অভিনেতা আছেন যারা অনেক কষ্ট করে দিনযাপন করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।যারা আজ প্রথম সারিতে আছেন। এইরকমই একজন ব্যক্তিত্ব হলো আশীষ বিদ্যার্থী।দিল্লির করোল বাগের একটা ভাড়া বাড়িতে তিনি জন্মগ্রহণ করেন।বর্তমানের তিনি বলিউডের বিখ্যাত খলনায়ক। খুব ছোটবেলা থেকেই অভিনয়ের দিকে আকর্ষণ ছিল এই অভিনেতার। তাই

পড়াশোনার পাশাপাশি অভিনয় জগতে আসার প্রতি একটা আলাদা টান জন্মেছিল। অবশ্য শুধুমাত্র অভিনয় শিখে থামেননি, তিনি শিখেছিলেন নাচ ও, কত্থক নাচ পারদর্শী করে তুলেছিলেন নিজেকে। কলেজ জীবনে তিনি ইতিহাসের ছাত্র ছিলেন। আর সেখানে সঙ্গী হিসেবে পেয়েছিলেন মনোজ বাজপাই এবং বিশাল ভরদ্বাজদের মত অভিনেতাদেরও। পড়াশোনা শেষ করার পর অভিনয়ে আরো পারদর্শী হতে তিনি জয়েন করেন

নেশনাল স্কুল অফ ড্রামা। কিন্তু স্নাতক হওয়ার পরেই পরিবারের দায়িত্ব এসে পড়েতার কাঁধে। অভিনয়ের দক্ষতার উপর ভরসা রেখে কাজের খোঁজে তিনি দিল্লি থেকে মুম্বাই চলে আসেন। মুম্বাইয়ে কাজের খোঁজে এসে তার অভিজ্ঞতা খুব একটা ভালো ছিলো না।তার গায়ের রং কালো হওয়ায় কাজ পেতে সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় ও অনেক কুরুচিকর মন্তব্য করে অনেকেই।সব কিছু মুখ বুজে সহ্য করে মুম্বাইতেই থেকে যান

তিনি।এরপর 1986 সালে বলিউড নয় কন্নড় ভাষার ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ মেলে। এরপর বলিউডেও ধীরে ধীরে কাজ পেতে শুরু করে। তবে বলিউডের দ্রোহকাল নামক ছবিতে অভিনয়ের পরেই পরিচিতি বেড়েছিল আশীষ বিদ্যার্থীর। ছবিতে নিজের দুর্দান্ত অভিনয় এর জন্য জাতীয় পুরস্কার পর্যন্ত পেয়েছিলেন তিনি।জাতীয় পুরস্কার পাওয়ার পর কাজ হয়তো পেয়েছিল তবে বলিউডে সেভাবে প্রতিপত্তি বাড়েনি অভিনেতার।

এমনকি বলিউডের দীর্ঘদিন কাজ করার পরেও তিনি ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। ২০১৫ সাল পর্যন্ত মূলত দক্ষিণী ছবিগুলিতে দেখতে পাওয়া যেত আশীষ বিদ্যার্থীকে। খলনায়ক হিসেবে তার অভিনয়ের দক্ষতা কোনো তুলনা ছিল না।তিনি অন্যদিকে মোটিভেশনাল স্পিকার ছিলেন তিনি, হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন নিজের জীবনের সংগ্রামের পথ হেঁটে আসার পর আজ আরো বহু মানুষকে উৎসাহের পথ দেখিয়ে দিয়েছেন তিনি।।

Check Also

পেন বিক্রেতা থেকে বলিউডের ১ নম্বরের কমিডিয়ান আজ এই অভিনেতা! তাঁর সম্পর্কে..

পেন বিক্রেতা থেকে বলিউডের ১ নম্বরের কমিডিয়ান আজ এই অভিনেতা! তাঁর সম্পর্কে..

পেন বিক্রেতা থেকে বলিউডের ১ নম্বরের কমিডিয়ান আজ এই অভিনেতা!- বলিউডে এমন অনেক ব্যক্তি আছেন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *