Sunday , April 18 2021
Home / লাইফ-স্টাইল / গরমে বাড়িতে ম্যাজিকের মতো কাজ করবে এই ১১টি গাছ! শরীর-মন থাকবে ঠান্ডা

গরমে বাড়িতে ম্যাজিকের মতো কাজ করবে এই ১১টি গাছ! শরীর-মন থাকবে ঠান্ডা

গরমে বাড়িতে ম্যাজিকের মতো কাজ করবে এই ১১টি গাছ! শরীর-মন থাকবে ঠান্ডা – NASA-র আর্থ সায়েন্স স্টাডি সম্প্রতি দাবি করেছে যে

বেশ কিছু গাছ আবহাওয়া যখন প্রচণ্ড গরম হয়ে যায়, তখন পাতার মাধ্যমে কিছুটা আর্দ্রতা মোচন করে থাকে বাতাসে। আর এরই ফলে এই সব গাছ ঘরের ভিতরে রাখলে তাপমাত্রা কিছুটা কমে যায়, দেখতে দেখতে শীতল হয়ে আসে বাড়ির অভ্যন্তর।

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক সে গাছগুলো সর্ম্পকে বিস্তারিত…

১. ফিকাস বেঞ্জামিনা (Ficus Benjamina)- উইপিং ফিগ (Weeping Fig) বলেও ডাকা হয় এই গাছকে। অর্থাৎ এই গাছ চোখের জল ফেলে। চোখের জল ফেলার এই অনুষঙ্গ বাতাসে আর্দ্রতা মোচনেরই ইঙ্গিত দেয়। তাই ঘরে রাখলে তাপমাত্রা যেমন শীতল থাকে, তেমনই বাড়তি পাওনা হয় সৌন্দর্য- গৃহশোভা বাড়াতেও এর জুড়ি নেই।
২. বস্টন ফার্ন (Boston Fern)-শুধু ঘরের তাপমাত্রা কমানোই নয়, একই সঙ্গে ঘরের বাতাস পরিশুদ্ধ রাখতেও এই গাছের জুড়ি মেলা ভার। তবে ফার্ন যেহেতু শীতল পরিবেশের গাছ, তাই এটি রাখতে হবে ছায়ায়, ঘন ঘন জলও দিতে হবে।

৩. অ্যালো ভেরা (Aloe Vera)- এই গাছের গুমাবলীর কথা নতুন করে খুব একটা বলার নেই। এর পাতার ভিতরে থাকে জলীয় ওষধি উপাদান, যা ত্বকে লাগালে নিমেষে ক্ষত বা পোড়া জুড়িয়ে যায়। একই সঙ্গে ঘরের তাপমাত্রা কমাতেও কাজে আসে অ্যালো ভেরা। এই গাছেও কিন্তু একটু বেশি জল দিতে হয়।
৪. স্নেক প্ল্যান্ট (Snake Plant)- অ্যালো ভেরার মতো এই গাছের পাতাও জলীয় উপাদানে সমৃদ্ধ। তাই জানলার কাছে রেখে দিলে তা উত্তাপ শোষণ করে নেবে, ঘরের হাওয়াকে করে তুলবে শীতল। এটিতেও অতিরিক্ত জলসেচনের দরকার হয়।

৫. বাম্বু পাম (Bamboo Palm)- এর বড় বড় পাতা খুব সহজেই চার পাশের উষ্ণতা শোষণ করে নেয়। তাই গ্রীষ্মে ঘর হিমশীতল রাখতে কাজে আসতে পারে বাম্বু পাম। শুধু দিনে বেশ কয়েকবার জল দিতে ভুললে চলবে না!

৬. স্পাইডার প্ল্যান্ট (Spider Plant)- মাকড়সা যেমন ছায়ার প্রাণী, তেমনই এই গাছকেও ছায়ায় রাখতে হয়। মানে ঘরের ভিতরে রাখতে হবে। আর তাতেই এটি প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে বাতাস পরিশুদ্ধ করবে, কমিয়ে দেবে ঘরের উষ্ণতা।
৭. পিস লিলি (Peace Lily)- এর অনবদ্য ফুলের শোভা যেমন চোখে শান্তি আনে, তেমনই গরমে বাতাস শীতল রেখে এটি দেহকেও আরাম দেয়। কেনার সময়ে একটু বড় পাতা দেখে কেনা ভালো আর বেশ কয়েকটা সারি দিয়ে একসঙ্গে রাখতে হবে।

৮. রবার প্ল্যান্ট (Rubber Plant)- এই গাছের পাতা এমনিতেই বড় হয়! পাশাপাশি যদি সব চেয়ে বড় পাতার শ্রেণী দেখে গাছটি কেনা হয়, তাহলে খুব তাড়াতাড়ি তা ঘর ঠাণ্ডা রাখবে। শর্ত একটাই- মাঝে মাঝেই একটু জল ছিটিয়ে দিতে হবে গাছের গায়ে।
৯. পটহোজ (Pothos)- যদি পরিচর্যার ঝক্কি এড়ানো উদ্দেশ্য হয়, তাহলে পটহোজের চেয়ে ভালো কিছু হতেই পারে না। এটি একই সঙ্গে বাতাস পরিশুদ্ধ করে ঘরের তাপমাত্রা শীতল রাখবে। তার জন্য দিনে একবার জল দিলেই যথেষ্ট!

১০. চাইনিজ এভারগ্রিন (Chinese Evergreen)- নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে এই চিরসবুজ গাছ ঘরে শান্তির আশ্রয় তৈরি করবে। বাতাস পরিশুদ্ধ রাখবে, গ্রীষ্মকে কাছে ঘেঁষতে দেবে না। যত বড় পাতা দেখে কেনা যাবে, উপকারও পাওয়া যাবে তত বেশি।
১১. এরিকা পাম (Areca Palm)- তালিকায় সবার শেষে এর নাম এলেও NASA কিন্তু তার গবেষণায় সব চেয়ে বেশি নম্বর দিয়েছে এরিকা পামকেই! তবে ঘরের ভিতরটা ঠাণ্ডা রাখতে মাঝে মাঝে জল দিতে হবে গাছে আর ছায়ায় রাখতে হবে একে।

Check Also

ভুলেও এই ৩টি কাজ করবেন না বন্ধ হয়ে যাবে PF অ্যাকাউন্ট

ভুলেও এই ৩টি কাজ করবেন না বন্ধ হয়ে যাবে PF অ্যাকাউন্ট

ভুলেও এই ৩টি কাজ করবেন না বন্ধ হয়ে যাবে PF অ্যাকাউন্ট – কর্মীদের ভবিষ্যত সুরক্ষার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x