Monday , July 26 2021
Home / লাইফ-স্টাইল / কোন ব্যক্তি মারা গেলে তার আধার, প্যান, ভোটার আইডি, পাসপোর্ট দিয়ে কী করা উচিত, বিশেষজ্ঞরা যা বলছে

কোন ব্যক্তি মারা গেলে তার আধার, প্যান, ভোটার আইডি, পাসপোর্ট দিয়ে কী করা উচিত, বিশেষজ্ঞরা যা বলছে

কোনও ব্যক্তি মারা গেলে তার আধার, প্যান, ভোটার আইডি, পাসপোর্ট দিয়ে কী উচিত, বিশেষজ্ঞরা যা বলছে- প্যান কার্ড, আধার কার্ড,
ভোটার আইডি কার্ড, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স এসব কিছুই সরকারী পরিচয়পত্র হিসাবে কাজ করে। কিন্তু আপনি কি কখনও ভেবে

দেখেছেন যে কোনও ব্যক্তির মৃত্যুর পরে এই আইডিগুলির কী হয়? মৃত ব্যক্তির আইনী উত্তরাধিকারীরা প্রায়শই জানেন না যে মৃত ব্যক্তির বিভিন্ন সরকারী নথি এবং আইডি দিয়ে তাদের কী করা উচিত। তাদের আর কতক্ষণ রাখা উচিত? এছাড়াও, তারা কি এই দস্তাবেজগুলি পরিচালনা এবং জারি করে সত্তাকে ফিরিয়ে দিতে পারে?

আজ আমরা এই খবরে আপনাকে এই সম্পর্কে তথ্য দিচ্ছি …

আধার কার্ড:
আধার নম্বর পরিচয়ের প্রমাণ এবং ঠিকানার প্রমাণ হিসাবে কাজ করে। বিভিন্ন স্থানে এলপিজি ভর্তুকি গ্রহণের সময় যেমন সরকারের কাছ থেকে বৃত্তি সুবিধা, ইপিএফ অ্যাকাউন্টগুলির ক্ষেত্রে ইত্যাদি, আধার নম্বর উল্লেখ করা প্রয়োজন। সেবি নিবন্ধিত বিনিয়োগের পরামর্শদাতা এবং বিশেষজ্ঞ জিতেন্দ্র সোলঙ্কির মতে, “আধার একেবারেই স্বতন্ত্র পরিচয় নম্বর। তবে, আইনি উত্তরাধিকারী বা পরিবারের সদস্যদের আধার যাতে অপব্যবহার না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তিনি বলেছিলেন যে মৃত ব্যক্তির আধার কার্ড বাতিল করার জন্য ইউআইডিএআইয়ের কোনও প্রক্রিয়া নেই এবং আধার ডাটাবেসে ধারকের মৃত্যুর তথ্য আপডেট করারও বিধান নেই।

ভোটার আইডি কার্ড:
সোলঙ্কি বলেছেন, ‘ভোটার আইডি কার্ডের ক্ষেত্রে নির্বাচনী নিবন্ধকরণ বিধি, 1960 এর অধীনে, ব্যক্তির মৃত্যুর পরে এটি বাতিল করার বিধান রয়েছে।’ জিতেন্দ্র সোলঙ্কি বলেছিলেন, ‘নিহত ব্যক্তির আইনী উত্তরাধিকারীর স্থানীয় নির্বাচন অফিসে যাওয়া উচিত। নির্বাচনের বিধি মোতাবেক একটি বিশেষ ফর্ম, অর্থাত্ Form নং ফর্ম পূরণ ও জমা দিতে হবে মৃত্যুর শংসাপত্রের সাথে বাতিল করার জন্য।

প্যান কার্ড:
সোলঙ্কি বলেছিলেন, “প্যান কার্ডটি মৃত ব্যক্তির আয়কর রিটার্ন (আইটিআর) জমা দেওয়ার মতো বিভিন্ন কাজের জন্য বাধ্যতামূলক রেকর্ড হিসাবে ব্যবহৃত হয়। প্যান উল্লেখ করা বাধ্যতামূলক যেখানে এই জাতীয় অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত কোনও ব্যক্তির জন্য প্যান বাধ্যতামূলক। আইটিআর ফাইল করার ক্ষেত্রে আয়কর বিভাগ কর্তৃক ট্যাক্স রিটার্ন দাখিলের প্রক্রিয়া না হওয়া পর্যন্ত প্যান রাখা উচিত। তিনি বলেন, যখন আয়কর বিভাগ সম্পর্কিত সমস্ত কাজ করা হয়, উত্তরাধিকারীর উচিত একবার আয়কর বিভাগের কাছে গিয়ে প্যান কার্ড সমর্পণ করা।

পাসপোর্ট:
বিশেষজ্ঞ সোলঙ্কি বলেছেন, ‘পাসপোর্টের ক্ষেত্রে মৃত্যুতে আত্মসমর্পণ বা বাতিল করার কোনও বিধান নেই। এ ছাড়া কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার কোনও পদ্ধতি নেই। তবে একবার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে এটি ডিফল্টরূপে অবৈধ হয়ে যায়। যাইহোক, মৃত্যুর পরেও এই নথিটি উত্তরাধিকারীর কাছে রাখা বুদ্ধিমানের সিদ্ধান্ত, কারণ আপনি এটি পরবর্তী পরিস্থিতিতে যে প্রমাণ হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন।এছাড়াও আধার এবং পাসপোর্টের মতো নথি যা আত্মসমর্পণ করা যায় না সেগুলি ধ্বংস করার পরিবর্তে মৃত্যুর শংসাপত্রের সাথে রাখা যেতে পারে।

Check Also

আপনার কাছে কুড়ি টাকার এই নোট থাকলে পেতে পারেন নগদ ৩ লক্ষ টাকা!

আপনার কাছে কুড়ি টাকার এই নোট থাকলে পেতে পারেন নগদ ৩ লক্ষ টাকা!

আপনার কাছে কুড়ি টাকার এই নোট থাকলে পেতে পারেন নগদ ৩ লক্ষ টাকা! – চলতি ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *