Home / লাইফ-স্টাইল / এবার কন্যা সন্তানের জন্ম দিলেই মিলবে ১১ হাজার টাকা
image: google

এবার কন্যা সন্তানের জন্ম দিলেই মিলবে ১১ হাজার টাকা

এবার কন্যা সন্তানের জন্ম দিলেই মিলবে ১১ হাজার টাকা – আজও সমাজের তথাকথিত কিছু মানুষ কন্যা সন্তানদের অবাঞ্ছিত, জঞ্জাল বলে মনে করে। কন্যা সন্তান হলে তাদেরকে মেরে ফেলার মত কাজ করতেও হাত কাঁপে না। তবে আর যাতে কেউ কন্যা সন্তানদের অবাঞ্ছিত মনে

না করে তার জন্য এবার কন্যা সন্তান ভূমিষ্ঠ হলেই ১১ হাজার টাকার ফিক্সড ডিপোজিটের ঘোষণা জেনেক্সর। চারপাশে বহু মানুষ ছেলে মেয়ে বিভেদ আজও করে। অনেকেই ভাবে ছেলেরা বড় হয়ে দায়িত্ব নেবে, তাই ছেলেদের জন্ম নেওয়াটা কাজের। আর মেয়ে মানেইতো অতিরিক্ত

খরচ, বিয়ে দিতে হবে কোন কাজে লাগবে না। এই ধরনের মানসিকতা নিয়ে আজও সমাজের কিছু মানুষ চলে। আর তাই কন্যা সন্তান হলে তাকে মেরে ফেলার মতো সিদ্ধান্ত নেয়। অনেক তো হলো এসব এবার বন্ধ হোক। বাল বিকাশ কার্যক্রমকে এগিয়ে নিয়ে যেতেই কন্যা সন্তান

জন্মালেই ১১ হাজার টাকার ফিক্সড ডিপোজটের ঘোষণা জেনেক্সর। এই পদক্ষেপ নেওয়ার মূল উদ্দেশ্যই ১৮ বছর বয়স হয়ে গেলে যাতে দেশের প্রত্যেকটি মেয়ে নিজেদের টাকায় উচ্চ শিক্ষা লাভ করতে পারে বা ফিক্সড ভেঙে সেই টাকা নিজেদের শিক্ষা, ব্যবসা বা বিয়ে যেখানেই

প্রয়োজন সেটায় ব্যবহার করতে পারে। এই পরিষেবা পেতে গেলে কন্যা সন্তানের অভিভাবকদের সংগঠনের ওয়েবসাইটে গিয়ে তাঁদের কন্যা সন্তানের নাম নথিভুক্ত করতে হবে। যারা নাম নথিভুক্ত করবেন তারাই ১১ হাজার টাকা ফিক্সড ডিপোজিটের সুবিধা পেয়ে যাবেন। সংস্থা সূত্রে

খবর, www.genexchild.com ওয়েবসাইটে গিয়ে সদ্যোজাত কন্যা সন্তানের নাম নথিভুক্ত করতে হবে। আর সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় এই সুবিধা পেতে গেলে কাউকেই কোনও খরচ করতে হবে না। এই প্রসঙ্গে জেনেক্স-র কর্ণধার পঙ্কজ গুপ্ত জানান, ‘এটা আমাদের কাছে একটা

গর্বের ব্যাপার। এই কার্যক্রমের ঘোষণা আমরা দেড় লাখ নেটওয়ার্ক পার্টনারের সঙ্গে মিলে করেছি। এরজন্য অভিভাবকদের থেকেও আমরা কোনও টাকা নেব না। আগামী প্রজন্মকে আত্মনির্ভর করে তুলতে এই প্রয়াস সার্থক হবে বলেই আশা। তবে, এই কার্যক্রমকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমাদের কোনও ফরেন ফান্ডিং নেই’।

Check Also

ফ্রিজে অতিরিক্ত বরফ জমছে? তাহলে জে’নে নিন করণীয়!

ফ্রিজে অতিরিক্ত বরফ জমছে? তাহলে জে’নে নিন করণীয়! – অনেকের ফ্রিজে কয়েকদিন পর পরই বরফের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x