Thursday , August 5 2021
Home / রুপচর্চা / অল্প বয়সে চুল পাকার সমস্যা থেকে বাঁচার ৩টি ঘরোয়া উপায়

অল্প বয়সে চুল পাকার সমস্যা থেকে বাঁচার ৩টি ঘরোয়া উপায়

অল্প বয়সে চুল পাকার সমস্যা থেকে বাঁচার ৩টি ঘরোয়া উপায় – সাধারণত, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের চুল পাকার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়।

শরীরে “মেলানিন” নামক এক প্রকারহরমোনের কার্যক্ষমতা কমে যাওয়াই, এর জন্য দায়ী। কিন্তু কম বয়সে চুল পেকে যাওয়া, একটা হাস্যকর ব্যাপার। চুল কালো করার জন্য আমরা বাজারের বিভিন্ন হেয়ার কালারের দ্বারস্থ হই। কিন্তু জানেন কি, এই হেয়ার কালার-এর মধ্যেই থাকে

চুলের পক্ষে ক্ষতিকারক, বিভিন্ন রাসায়নিক উপাদান। যা দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে, চুলকে রুক্ষ এবং শুষ্ক করে তোলে।আর এই সমস্ত কথা মাথায় রেখেই আজকে দাশবাস নিয়ে এসেছে সম্পূর্ণ ভিন্নধর্মী প্রাকৃতিক বা ঘরোয়া উপায়ে চুল কালো করার পদ্ধতি। যেখানে না আছে কোন কেমিক্যাল, না আছে কোন ক্ষতিকারক রঞ্জক পদার্থ।

১. মেহেন্দি পাতার কারসাজি সাদা চুল, কালো করতে মেহেন্দি পাতা অদ্বিতীয়। আর কথা না বাড়িয়ে, চলুন জেনেনি এই মেহেন্দি পাতার প্যাক-টি সম্পর্কে। উপকরণঃ মেহেন্দি পাতা পরিমাণ মতো হরিতকী গুঁড়ো এক চামচ আমলকি গুঁড়ো এক চামচ নারকেল তেল তিন চা চামচ ক্যাস্টর অয়েল তিন চামচ অলিভ অয়েল তিন চামচ ব্যবহারবিধিঃ প্রথমেই পরিমাণমতো মেহেন্দি পাতা নিয়ে ভালো করে বেটে (পেস্ট) নিন। এবারে হরিতকী গুঁড়ো , আমলকি গুঁড়ো, নারকেল তেল, ক্যাস্টর অয়েল এবং অলিভ অয়েল, উপরিউক্ত পরিমাণে মিশিয়ে, তার মধ্যে

মেহেন্দী পাতা বাটা এক চামচ দিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন।মিশ্রণটি তৈরি হয়ে গেলে, খুব যত্ন সহকারে এটিকে ফুটিয়ে নিন। অতঃপর, এই ফুটন্ত মিশ্রণটি ঠান্ডা হয়ে গেলে, মাথার স্ক্যাল্প সমেত সমগ্র চুলে, ব্রাশের সাহায্যে ভালোভাবে লাগিয়ে নিন। চুলে, পেস্টটি লাগানো অবস্থায় এক ঘন্টা অপেক্ষা করুন। এখন যে কোন হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুই দিন অবশ্যই এই প্যাকটি ব্যবহার করুন।

২. কেশুতি পাতার চমক সাদা চুল কালো করতে কেশুতি পাতা? হ্যা, চমকে যাবেন না। ঠিকই শুনেছেন। আজ দাশবাস আপনাদেরকে জানাবে, কিভাবে কেশুতি পাতা আমাদেরকে, স্বাস্থ্যোজ্জ্বল, ঝকঝকে এবং কালো চুল উপহার দেয়। উপকরণঃ কেশুতি পাতা পরিমাণ মতো মেথি গুঁড়ো এক চামচ ডিমের কুসুম (সাদা অংশ বাদে) একটি টক দই 2 চামচ নারকেল তেল এক চামচ ব্যবহারবিধিঃ প্রথমেই, পরিমাণমতো কেশুতি পাতা বেটে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এবারে, ওই পেস্টটির থেকে দুই চামচ নিয়ে, মেথি গুঁড়ো, ডিমের কুসুম, টক দই, নারকেল

তেল উপরিউক্ত পরিমাণে মেশান। আপনার প্যাকটি তৈরি। এখন এই প্যাকটি, মাথার স্ক্যাল্প সমেত সমগ্র চুলে, ব্রাশের সাহায্যে খুব যত্ন সহকারে লাগান। তারপর এক ঘন্টা অপেক্ষা করুন। এক ঘন্টা পরে যে কোন হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। কেশুতি পাতাকে অনেকেই কালো-কেশী বলে চিনে থাকে। এই পাতা নিয়মিত ব্যবহারে, মাথার চুল কালো হওয়ার পাশাপাশি চুলের গোড়াও মজবুত করে। চুল পড়া বন্ধ করে।

৩. পেঁয়াজের পেঁয়াজি আদিকাল থেকেই নতুন চুল গজানোর জন্য পেঁয়াজের ব্যবহার চলে আসছে। কিন্তু অনেকেই জানেন না, যে এই পেঁয়াজ সাদা চুল কালো করতে একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে। উপকরণঃ বড় পেঁয়াজ একটি এক চামচ লেবুর রস ব্যবহারবিধিঃ প্রথমেই, একটি বড় পেঁয়াজ কে খোসা ছাড়িয়ে টুকরো টুকরো করে কেটে নিন। অতঃপর টুকরো পেঁয়াজ গুলিকে মিক্সচার ব্লেন্ডারে ভালো করে

পেস্ট করুন। এখন একটি ছাঁকনির সাহায্যে এই পেস্ট- টিকে ভালো করে ছেঁকে নিন। এবারে পেঁয়াজ -এর ওই ছাঁকা অংশের সঙ্গে‌, বড় চা চামচের এক চামচ লেবুর রস মেশান। মাথার সমগ্র চুলে এবং চুলের গোড়ায় খুব ভালোভাবে এই মিশ্রণটি লাগান। মিশ্রণটি মাথায়, না শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। পেস্টটি মাথায় শুকিয়ে যাবার পর ভালো কোন হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে মাথাটি যত্ন সহকারে ধুয়ে ফেলুন।(রিঠার জল শ্যাম্পু আকারে ব্যবহার করা যেতে পারে)। সপ্তাহে অবশ্যই এই প্যাকটিকে তিন থেকে চার দিন ব্যবহার করুন।

Check Also

মাত্র ১ সপ্তাহে জাদুর মতো চুল পড়া বন্ধ করবে এই পাতা

মাত্র ১ সপ্তাহে জাদুর মতো চুল পড়া বন্ধ করবে এই পাতা

চুলের নানা রকম সমস্যা কম-বেশি সবাই ভুগে থাকেন।বিশেষ করে চুল পড়ার সমস্যাটি বেশি হয়ে থাকে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *